এক সপ্তাহ হতে চলল। এখনও ধরা পড়ল না মধ্যমগ্রামে প্রকাশ্যে গুলি করে খুনের ঘটনার মূল অভিযুক্তেরা। তাদের দ্রুত গ্রেফতারির দাবিতে বৃহস্পতিবার পথ অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখালেন মৃতের পরিজন ও প্রতিবেশীরা। প্রায় এক ঘণ্টার ওই অবরোধে যানজটে নাজেহাল হলেন মধ্যমগ্রাম-সোদপুরের অসংখ্য যাত্রী।

গত শুক্রবার মধ্যমগ্রামে খুন করা হয় প্রোমোটার গৌতম দে সরকার ওরফে ঢাকাই গৌতমকে। দশ-বারো জনের একটি দুষ্কৃতী দল প্রকাশ্যে বোমা মেরে, গুলি চালিয়ে খুন করে গৌতমকে। পুলিশি তদন্তে জানা যায়, দুষ্কৃতীরা অন্তত ২০ রাউন্ড গুলি চালিয়েছিল। ওই ঘটনার পরে মধ্যমগ্রাম জুড়ে আতঙ্ক ছড়ায়। মৃতের বাড়ির লোকজন টুবাই মোদক ও সাহাবুদ্দিন-সহ বেশ কয়েক জনের বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। ঘটনার দিনই পুলিশ এই ঘটনায় কুরু বসু নামে এক জনকে গ্রেফতার করেছিল। অভিযোগ, সে-ই গৌতমকে চিনিয়ে দিয়েছিল। কিন্তু মূল অভিযুক্ত টুবাই-সহ বাকিদের ধরতে পারেনি পুলিশ।

এ দিন অবরোধকারীদের অভিযোগ, অভিযুক্তেরা শাসক দলের ঘনিষ্ঠ হওয়ায় পুলিশ তাদের ধরছে না। বিভিন্ন সময়ে শাসক দলের অনুষ্ঠানে টুবাইকে দেখা গিয়েছে বলে দাবি করেন গৌতমের বাড়ির লোকজন। যদিও মধ্যমগ্রামের বিধায়ক এবং জেলা তৃণমূলের কার্যকরী সভাপতি এই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে বলেন, ‘‘কোনও দুষ্কৃতীর সঙ্গেই দলের সম্পর্ক নেই।’’ পুলিশ তদন্ত করছে বলেই জানিয়েছেন তিনি।

এ দিন গৌতমের বাড়ির লোকজন একটি সিসিটিভি ফুটেজ সংবাদমাধ্যমের হাতে তুলে দেয়। ধৃত কুরু যে সে দিন বাড়ি থেকে গৌতমকে ডেকে এনেছিল, সেই ফুটেজে তা স্পষ্ট দেখা গিয়েছে বলেই জানাচ্ছে পুলিশ। ওই ফুটেজ তাঁরা পুলিশকেও দিয়েছেন বলে জানান অবরোধকারীরা।