চেয়ারে দু’পা তুলে রোগী দেখছেন চিকিৎসকরা। গোড়ালি ডোবা জলে দাঁড়িয়েই চলছে অস্ত্রোপচার। জলে ডুবেছে ওয়ার্ডগুলিও। শয্যার নিচে রাখা ডাস্টবিন উল্টে ভাসছে চিকিৎসার বিভিন্ন সামগ্রী। শুক্রবার রাত থেকে টানা বৃষ্টিতে জল জমে এখন এমনই অবস্থা মালদহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। এর জেরে চরম বিপাকে পড়েছেন চিকিৎসার জন্য আসা রোগী এবং তাঁদের পরিজনেরা।

নাজেহাল হতে হচ্ছে চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্য কর্মীদেরও। চিকিৎসকদের বক্তব্য, চিকিৎসায় ব্যবহৃত বর্জ্য জলে ভাসছে। তার মধ্যে ঘণ্টার পর ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থেকেই চিকিৎসা করার ফলে চর্মরোগ হওয়ার সম্ভাবনা। যদিও পাম্প চালিয়ে জল নামানোর চেষ্টা চলছে বলে দাবি মেডিক্যাল কলেজ কর্তৃপক্ষের। মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের সুপার তথা সহ অধ্যক্ষ অমিত কুমার দাঁ বলেন, ‘‘মেডিক্যাল কলেজের নিকাশি ব্যবস্থা উন্নত করা হয়েছে। তবে হাসপাতাল সংলগ্ন এলাকা গুলির নিকাশি ব্যবস্থা বেহাল থাকায় মেডিক্যাল কলেজ থেকে জল নামতে সময় লাগছে। পূর্ত দফতরের আধিকারিকেরা পাম্পের সাহায্যে জল নামানোর চেষ্টা করছেন।’’ এর মধ্যেও রোগীদের পরিষেবা দেওয়ার চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

মেডিক্যাল সূত্রে খবর, টানা বৃষ্টিতে জলমগ্ন মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের এক তলার  ওয়ার্ডগুলি। জরুরি বিভাগ, পুরুষ মেডিসিন, প্রসুতি বিভাগ, মহিলা মেডিসিন, অপারেশন থিয়েটারে গোড়ালি সমান জল জমে রয়েছে। এছাড়া জরুরি বিভাগ, বহির্বিভাগের সামনেও হাঁটু জল। জরুরি বিভাগের চিকিৎসকরা চেয়ারের উপরে দু’পা তুলে রোগীদের চিকিৎসা করছেন। কেবিনে পা তুলে বসে রয়েছেন নার্সরাও।