বলিউড ও হলিউডে দাপিয়ে অভিনয় করছেন। নিজের কাজের পরিধি বাড়িতে তুলতে হাত দিয়েছেন প্রযোজনা ও পরিচালনার কাজেও। তাঁর অসংখ্য ভক্তের কাছে ‘অসম্ভব ট্যালেন্টেড’ বলে পরিচিত ‘দেশি গার্ল’ প্রিয়ঙ্কা চোপড়া। সেই প্রিয়ঙ্কারই হঠাত্ হল কী?

সম্প্রতি টরন্টো ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভালে গিয়ে ইটি কানাডাকে দেওয়া একটি সাক্ষাত্কারে সিকিমকে ‘জঙ্গি আন্দোলনে অশান্ত এলাকা’ বলে মন্তব্য করেন অভিনেত্রী। প্রিয়ঙ্কা প্রযোজিত প্রথম সিকিমের ছবি ‘পহুনা’র বিষয়ে বলতে গিয়েই এমন মন্তব্য করেন নায়িকা। তিনি বলেন, ‘‘উত্তর পূর্ব ভারতের ছোট্ট রাজ্য সিকিম। এখানে কোনও ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি নেই, এখানকার কেউ কোনও দিন ছবি করেননি। এই এলাকা থেকে এটাই প্রথম ছবি, কারণ বিচ্ছিন্নতাবাদী আন্দোলন‌ের জেরে সিকিমের পরিস্থিতি অত্যন্ত জটিল ও সমস্যাসঙ্কুল।’’

 

প্রিয়ঙ্কার এই মন্তব্য ঘিরেই শুরু হয় বিতর্ক। যার জেরে নাকি ক্ষমা চেয়ে নেন প্রিয়ঙ্কার মা। ইন্ডিয়া টুডে টেলিভিশনের খবর অনুযায়ী, সিকিমের পর্যটনমন্ত্রী উগেন গাটসো জানিয়েছেন, প্রিয়ঙ্কার মা মধু চোপড়া তাঁকে ফোন করে ক্ষমা চেয়েছেন। প্রিয়ঙ্কার এমন মন্তব্যের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন তিনি।

আরও পড়ুন, বান্ধবীর সঙ্গে ব্রেকআপ হল কপিলের! নেপথ্যে কে?

আরও পড়ুন, বিকিনি পড়া ছবি পোস্ট করে ট্রোলড তাপসী, দিলেন যোগ্য জবাবও

প্রিয়ঙ্কার মন্তব্য ঘিরে সোশ্যাল সাইটেও তুমুল সমালোচনা হয়। অনেকেই মন্তব্যের আগে তথ্য যাচাই করে নেওয়া উচিত্ বলে পরামর্শ দিয়েছেন নায়িকাকে।