কয়েক দিন আগেও রাত ন’টায় টেলিভিশনে আটকে থাকতেন দর্শক। এক খুদে ভূতের কাণ্ডকারখানায় জমে উঠত বাড়ির ড্রইংরুম। সৌজন্যে ডেলি সোপ ‘ভুতু’।

সিরিয়াল শেষ। তাই টিভির পর্দা থেকে বিদায় নিয়েছে সেই খুদে ভূত ওরফে আরশিয়া মুখোপাধ্যায়। এ বার তার নতুন ইনিংস। ফিল্মে ডেবিউ করছে এই খুদে তারকা। দেবের প্রযোজনা সংস্থার দ্বিতীয় ছবি কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায় পরিচালিত ‘ককপিট’-এ দেখা যাবে তাকে। এ খবর দিলেন ‘ভুতু’র মা ভাস্বতী মুখোপাধ্যায় স্বয়ং।

ভাস্বতী জানালেন, ‘ভুতু’র নাম এই ছবিতে ‘কিটি’। ওর বাবা-মা দুটো আলাদা শহরে থাকেন। ইগোর লড়াই তাঁদের এক হতে দেয় না। কিন্তু ‘কিটি’-র নিরন্তর প্রচেষ্টা বাবা-মাকে মিলিয়ে দেওয়ার। সে কি পারবে?

আরও পড়ুন, ভূত দেখবেন? আসুন…

ইন্ডাস্ট্রি সূত্রে খবর, ছবির গল্প অনুযায়ী মুম্বই থেকে মা ‘কিটি’কে একা একাই বিমানে তুলে দেন। কলকাতায় বাবা রিসিভ করবেন তাকে। একা চলার পথে ‘কিটি’কে সাহায্য করেন এক বিমানসেবিকা। এই চরিত্রে অভিনয় করছেন রুক্মিণী মৈত্র। কিন্তু বিমান ভয়ঙ্কর দুর্যোগে পড়ে। যাত্রীদের রক্ষা করার কাজে এগিয়ে আসেন পাইলট। এই চরিত্রে দেখা যাবে দেবকে।

‘ভুতু’ শেষ হওয়ার পর ভাস্বতী জানিয়েছিলেন, এই মুহূর্তে আর অভিনয় নয়। বরং পড়াশোনায় মন দেবে আরশিয়া। তা হলে ‘ককপিট’-এর জন্য রাজি হলেন কেন? ভাস্বতী বললেন, ‘‘বড় শিল্পীদের সঙ্গে কাজ করার সুযোগ পাচ্ছে, সেটাই বড় কথা। চরিত্রটাও ভাল। আর সবচেয়ে বড় কথা কমলদার মতো পরিচালকের গাইডেন্স।’’

মেকআপে ব্যস্ত আরশিয়া।

কী ভাবে সুযোগ পেল আরশিয়া? ভাস্বতীর কথায়, ‘‘প্রথম ফোনটা প্রোডাকশন হাউস থেকেই এসেছিল। তারপর ওকে নিয়ে লুক টেস্টে যাই। সেখানেই কমলদা ব্রিফ করেন।’’

ইতিমধ্যেই শুটিং শুরু হয়ে গিয়েছে। স্কুলের পাশাপাশি সেটাও দারুণ এনজয় করছে আরশিয়া। ‘‘এটা তো নতুন এক্সপিরিয়েন্স। খুব ভাল লাগছে আমার।’’  

আরও পড়ুন, সকলকে কাঁদিয়ে চলে যাচ্ছে ভুতু