অমিতাভ বচ্চন অনেক গল্পেরই সুত্রধর হয়েছেন। সত্যজিত রায়ের ‘সতরঞ্চ কি খিলাড়ি’ থেকে হালের ‘কহানি’। কিন্তু ‘ধন্যি মেয়ে’ কে আগে কখনও এই ভূমিকায় দেখা যায়নি। ‘ধন্যি মেয়ে’র বোধ হয় আলাদা করে পরিচয় দেওয়ার প্রয়োজন পড়ে না। জয়া বচ্চন যে কবে শেষ ছবি করেছেন, তা মনে করা দুষ্কর। তবে এবার জয়াকে অন্য এক ভূমিকায় দেখা যাবে। গল্পের সুত্রধরের ভূমিকায়। ‘আলিফ-লড়না নহি পড়না হয়’ ছবিতে স্টোরিটেলার জয়া বচ্চন। অনেক দিন পর, নতুন এক ভূমিকায় হাজির হতে চলেছেন ‘ধন্যি মেয়ে’। আগামী ৩ ফেব্রুয়ারি মুক্তি পাবে এই ছবিটি।

সাংবাদিক জয়ঘম ইমাম এই ছবিটির পরিচালক। ইমামের আগের ছবিটি খোদ বিগ বির প্রশংসা পেয়েছিল। সেই ছবিটিও ঘুরেছিল একাধিক আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব। এই ছবির চিত্রনাট্যও ইমামেরই লেখা। সিনেমার প্রযোজক পবন তিওয়ারি। ছবিটির বেশির ভাগ শুটিংই হয়েছে বারাণসীতে। মফস্‌সলের এক বাবা তাঁর ছেলেকে চিকিত্সক তৈরি করতে চান। আর এখান থেকেই শুরু হয় দ্বন্দ্ব। লড়াই শুরু করেন তাঁর পারিপার্শ্বিক লোকজন এবং গতানুগতিক শিক্ষা ব্যবস্থার বিরুদ্ধে। ছবিতে অভিনয় করছেন নিলীমা আজিম, দানিশ হুসেন, ভবনা পানি, সিমালা প্রসাদ, পবন তিওয়ারি, আদিত্য ওম এবং শিশু অভিনেতা মহম্মদ সাউদ এবং ঈশান কৌরব।

ছবির একটি দৃশ্য

মাস খানেক আগে লখনউতে ছবিটির ট্রেলার লঞ্চ করেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদব। মূলত উত্তরপ্রদেশে শুটিং বলেই মুখ্যমন্ত্রীর এই উদ্যোগ। ট্রেলার লঞ্চ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অমিতাভ বচ্চন, অভিষেক বচ্চন, অনুরাগ  কাশ্যপ এবং জয়া বচ্চন।

আরও পড়ুন: যৌন চাহিদা পূরণ না করায় ছেঁটেই দেওয়া হল চরিত্র, অভিযোগ নায়িকার

অস্ট্রেলিয়ার চলচ্চিত্র উৎসবে প্রিমিয়ার হয় ছবিটির। ‘ইন্ডিয়ান ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল  অব কুইন্সল্যান্ড’  এ দেখানো হয় ছবিটি। সম্প্রতি আলিগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়ে দেখানো হয় এই সিনেমা। সেখানে অনেকেই আপ্লুত হন ছবিটি দেখে। বায়োস্কোপ গ্লোবাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে এই সিনেমা শ্রেষ্ঠ চিত্রনাট্য লেখক এবং শ্রেষ্ঠ শিশু শিল্পীর পুরস্কার পায়।

দেখুন ছবির ট্রেলার