এক উঠোন বারো ঘর— চিরকেলের চেনা কলকাতার ট্রেডমার্ক ছবিটা আজ অনেকটাই ফিকে। এ হেন কলকাতাকে সেলুলয়েডের ফ্রেমে ফিরিয়ে আনলেন পরিচালক জুটি রাজেশ দত্ত ও ইপ্সিতা রায় সরকার। সৌজন্যে তাঁদের নতুন ছবি ‘৬১ নং গড়পার লেন’।

চিত্রনাট্য এগিয়েছে এক ভাড়াবাড়িকে কেন্দ্র করে। ঠিকানা ৬১ নং গড়পার লেন। জগদীশ বাবুর বাড়িতে ভাড়া থাকেন আট ঘর ভাড়াটে। নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবারের মানুষগুলির সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক ঠিক ভাড়াটে-বাড়িওয়ালার নয়। বরং সব কিছু পেরিয়ে তিনি যেন সকলের অভিভাবক। সুখ-দুঃখে আগলে রাখেন সকলকে। একমাত্র মেয়ে ঝিনুক পেশায় ইঞ্জিনিয়ার সুপ্রতীককে বিয়ে করে পাকাপাকি ভাবে চন্দননগরের বাসিন্দা। তাই জগদীশ বাবুর আত্মীয় এখন এই ভাড়াটেরাই।

আরও পড়ুন, ‘আমার শরীরের কোনও কিছুর শেপই ঠিক নেই বলেছিলেন এক প্রযোজক’

হঠাত্ই বিপর্যয়। ভাড়াটেদের নিস্তরঙ্গ জীবনে আসে অচেনা মোড়। সুপ্রতীকের আলাপ হয় রিয়েল এস্টেট ব্যবসায়ী মিস্টার বাজোরিয়ার সঙ্গে। কালের নিয়ম মেনে জগদীশ ঘোষের বাড়ি ভেঙে তিনি আধুনিক হাউসিং কমপ্লেক্স তৈরি করতে চান। আর তখনই এসে পড়ে ভাড়াটে উত্খাতের প্রসঙ্গ। তারপর?

শুটিং করছেন সুদীপ্তা, চান্দ্রেয়ী প্রমুখ।

এর পরের কাহিনি জানতে হলে আগামিকাল আপনাকে হলে যেতে হবে। কালই মুক্তি পাচ্ছে ছবিটি। মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করেছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, প্রিয়াংশু চট্টোপাধ্যায়, রাজশ্রী রাজবংশী প্রমুখ। এ ছা়ড়াও মনোজ মিত্র, সুদীপ্তা চক্রবর্তী, খরাজ মুখোপাধ্যায়, চান্দ্রেয়ী ঘোষ, পুষ্পিতা মুখোপাধ্যায়ের অভিনয় সমৃদ্ধ করেছে ছবিটিকে।