ফ্লোরিডার মার্জোরি স্টোনম্যান ডগলাস হাই স্কুলে বন্দুক নিয়ে হামলা চালাল স্কুলেরই এক প্রাক্তন ছাত্র।

বুধবার এই হামলায় নিহত হয়েছেন ১৭ জন, আহত বেশ কয়েক জন। আহতদের মধ্যে বেশ কয়েক জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

পুলিশ ইতিমধ্যে হামলাকারীকে গ্রেফতার করেছে। পুলিশ জানিয়েছে, হামলাকারীর নাম নিকোলাস ক্রুজ। ব্রোয়ার্ড কাউন্টির শেরিফ স্কট ইজরায়েল জানান, হামলাকারী ওই ছাত্রকে শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে কয়েক দিন আগেই স্কুল থেকে বিতাড়িত করা হয়।

আরও পড়ুন: দুর্নীতির অভিযোগ ওড়ালেন নেতানিয়াহু

বুধবার স্থানীয় সময় তখন দুপুর ২.৩০। স্কুল ছুটি হওয়ার ঠিক আগেই হামলাকারী ছাত্র স্কুল বিল্ডিংয়ে ঢুকে এলোপাথারি গুলি চালাতে শুরু করে। নিহতদের মধ্যে বেশিরভাগই পড়ুয়া। তদন্তকারীরা জানিয়েছেন, হামলা আরও ভয়াবহ করতে স্কুলের ফায়ার অ্যালার্ম বাজিয়ে দেয় নিকোলাস। উদ্দেশ্য ছিল, এর ফলে আতঙ্কিত হয়ে বেশি করে ছাত্ররা বাইরে চলে আসবে। আর তখন গুলি চালালে মৃতের সংখ্যাও বাড়বে। কিন্তু সে দিনই সাপ্তাহিক সতর্কতা হিসাবে স্কুলে বেশ কয়েক বার ফায়ার অ্যালার্ম বাজায় ছাত্ররা তেমন গুরুত্ব দেয়নি। তদন্তকারীদের দাবি, এর ফলে মৃত্যুর সংখ্যাও অনেকটাই কমেছে।

স্কট জানান, প্রথমে স্কুলের বাইরে গুলি চালিয়ে ৩ জনকে হত্যা করে নিকোলাস। তারপর সে স্কুলের ভিতরে ঢুকে গুলি চালাতে থাকে। ঘটনাস্থলেই ১২ জনের মৃত্যু হয়। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে আরও ২ জন মারা যান। পরে হাসপাতালে মৃত্যু হয় আরও তিন জনের।