উচ্চতায় বেশ লম্বা। দেখতেও ভাল। তবে সহজে তার উপরে চড়া যাবে না। এই হলো যোগ্যতা। মার্কিন প্রেসিডেন্টের এই ফরমায়েশ মেনেই দেওয়ালের নকশা তৈরি করতে বসবেন স্থপতিরা।

সেই দেওয়াল। অনুপ্রবেশ রুখতে মেক্সিকো আর আমেরিকার মাঝে যে দেওয়াল তুলবেন বলে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। এ বার সেই লক্ষ্যেই ট্রাম্প প্রশাসন দেওয়ালের নকশা সংক্রান্ত প্রস্তাব পাঠাচ্ছে বিভিন্ন সংস্থার কাছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট চান, ৩১০০ কিলোমিটার দীর্ঘ মার্কিন-মেক্সিকো সীমান্ত বরাবর এমন দেওয়াল তোলা হবে, যা কোনও অভিবাসী টপকাতে পারবেন না। তাই দেওয়ালের উচ্চতা হওয়া উচিত ৩০ ফুট। তবে ট্রাম্প প্রশাসনের কর্তারা বলছেন, অন্তত ১৮ ফুট উঁচু দেওয়ালের নকশা বিবেচনা করা হবে।  তা যেন মই নিয়েও টপকানো না যায়।

ট্রাম্পের নির্দেশ— এই দেওয়াল ফুঁড়ে, ভেঙে কেউ যেন ঢুকতে না পারে। দেওয়ালের নীচ থেকে খুঁড়েও যেন অনুপ্রবেশের সম্ভাবনা না থাকে। ভাঙার ‘অপচেষ্টা’ হলেও অন্তত আধ ঘণ্টা যেন তা ঠেকিয়ে রাখার ক্ষমতা থাকে এই দেওয়ালের। প্রাথমিক ভাবে কংক্রিটের দেওয়ালের কথাই ভাবা হয়েছে। অন্য কোনও প্রস্তাব যদি আসে, সেটাও ভেবে দেখা হবে।

এ তো গেল মাপজোকের খুঁটিনাটি। নজর রাখতে হবে দেওয়ালের সৌন্দর্যের দিকেও। দৃষ্টিনন্দন করার জন্য আমেরিকার দিকে প্রাকৃতিক দৃশ্যের সঙ্গে মিলিয়ে করতে হবে দেওয়ালের রং। তবে মেক্সিকোর দিকে দেওয়াল কেমন দেখতে হবে, তা নিয়ে একটি শব্দও নেই ট্রাম্পের নির্দেশে! মেক্সিকোর কাছ থেকেও অর্থ নিয়ে এই দেওয়াল তোলা হবে, এ কথা প্রচারে বলেছিলেন ট্রাম্প। সেই অবস্থানে অনড় তিনি। মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট এনরিক পেনা নিয়েতো অবশ্য গোড়া থেকেই জানিয়েছেন, এ জন্য কোনও অর্থ ব্যয় করবে না তাঁর দেশ।