ভারতের টাকায় নির্মীয়মাণ ইরানের ছাবাহার সমুদ্রবন্দরের একটি অংশের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হয়ে গেল রবিবার।

দেশের নিরাপত্তার স্বার্থে আর পাকিস্তানের ভূখণ্ড ব্যবহার না করে আফগানিস্তান, ইরান ও মধ্য এশিয়ার দেশগুলির সঙ্গে বাণিজ্য-সম্পর্ক জোরদার করে তুলতে ইরানের ছাবাহারে সমুদ্রবন্দর গড়ে তুলতে ৫০ কোটি ডলার দিয়েছে ভারত।

প্রাথমিক ভাবে ছাবাহার বন্দরের যে অংশটির কাজ শেষ হয়েছে, তার নাম দেওয়া হয়েছে, শাহিদ বেহেস্তি বন্দর। এখন ওই বন্দরের দু’টি বার্থ ব্যবহার করবে ভারত। আজ ওই বন্দরের উদ্বোধন করেন ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি। হাজির ছিলেন ভারত, আফগানিস্তান ও মধ্য এশিয়ার দেশগুলির প্রতিনিধিরাও।

আরও পড়ুূন- পাকিস্তানের সাধারণ নির্বাচনে লড়াইয়ের ঘোষণা হাফিজ সইদের​

আরও পড়ুূন- মার্কিন ভোটে জোর লড়াই ভারতীয়দের​

আগামী বছরের শেষাশেষি মাল ওঠা-নামার কাজ শুরু হয়ে যাবে ওই বন্দরে। কাজ কেমন এগিয়েছে, তা দেখতে রাশিয়া সফর শেষে ভারতে ফেরার পথে শনিবার তেহরান ছুঁয়ে আসেন বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ। ঘুরে দেখার সময় তাঁর সঙ্গে  ছিলেন ইরানের বিদেশমন্ত্রী জাভেদ জারিফও।

পারস্য উপসাগরের দক্ষিণ উপকূলে ইরানের দক্ষিণ-পূর্ব প্রান্তের সিস্তান-বালুচিস্তান প্রদেশের ছাবাহারে বন্দর গড়ে ওঠায় এ বার পাক ভূখণ্ড ব্যবহার না করেই পশ্চিম উপকূল থেকে ভারত ব্যবসা, বাণিজ্য চালাতে পারবে আফগানিস্তান, ইরান ও মধ্য এশিয়ার তেল ও প্রাকৃতিক গ্যাস সমৃদ্ধ দেশগুলির সঙ্গে।    

গত অক্টোবরেই ভারত জাহাজে চাপিয়ে আফগানিস্তানে গম পাঠিয়েছিল ছাবাহার বন্দর দিয়ে। ওই বন্দর নির্মাণের জন্য ভারত ও ইরানের মধ্যে চুক্তি হয়েছিল গত বছরের মে মাসে। সেই সময় ইসলামাবাদের তরফে বলা হয়েছিল, পাকিস্তানে অস্থিরতা সৃষ্টি করতে আফগানিস্তানকে ব্যবহার করার লক্ষ্যেই ভারতের এই পদক্ষেপ।