অনেক দিন পর আবার দেশের জার্সিতে মাঠে ফিরেছেন যুবরাজ সিংহ। কিন্তু সেখানেও স্বস্তি নেই তাঁর বাবা যোগরাজ সিংহের। অতীতে একাধিকবার যুবরাজের দলে জায়গা না পাওয়া নিয়ে ধোনির দিকে আঙুল তুলেছেন তাঁর বাবা। এ বারও বাদ দিলেন না। বলে দিলেন, ধোনি আর অধিনায়ক নেই বলেই দলে জায়গা হয়েছে তাঁর ছেলের।

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ওয়ান ডে দল ঘোষণার ঠিক একদিন আগেই অধিনায়কত্ব থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। বিরাট কোহালিকে অধিনায়ক করে দল বেছে নিয়েছেন নির্বাচকরা। যুবরাজকে নেওয়ার ব্যাপারে যে কোহালি সওয়াল করেছিলেন সে নিয়ে কোনও সংশয় নেই। আর ব্যাট হাতে অনুশীলন ম্যাচে নেমেই যুবরাজ প্রমাণও করে দিয়েছেন এখনও ব্যাট হাতে দলের কাজে লাগতে পারেন তিনি। ২০১৩ সালের ডিসেম্বরে শেষ দেশের হয়ে ওয়ান ডে খেলেছিলেন তিনি। যোগরাজের বক্তব্য, দু’বছর আগেই নাকি এটা তিনি বুঝতে পেরেছিলেন। যেটা এখন প্রমাণ হল।

আরও খবর: নতুন ঝড় তুলবেন, ‘শেষ’ ম্যাচে বুঝিয়ে দিল চাপমুক্ত ধোনির ব্যাট

যোগরাজ সব সময়ই ধোনির বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন। ২০১৫ বিশ্বকাপ দলে যুবরাজকে না রাখার দায়ও চাপিয়েছেন ধোনির ওপরই। সব সময়ই যুবরাজের দলে সুযোগ না পাওয়ার জন্য দায় চাপিয়েছেন তিনি। কিন্তু যুবরাজের ক্ষেত্রে ঠিক উল্টোটাই হয়েছে। যুবরাজ নিজে সব সময় ধোনির অধিনায়কত্বকে ওঁর জীবনে একটা জায়গা দিয়েছেন। ধোনির নেতৃত্বেও সাফল্যের সঙ্গেই খেলেছেন। ধোনি অধিনায়কত্ব ছাড়ার পরও যুবরাজ তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছেন। যোগরাজের এই সব মন্তব্যে কখনওই পাল্টা মন্তব্য করতে শোনা যায়নি ধোনিকে। স্বভাবসিদ্ধভাবে নীরবই থেকেছেন তিনি। কিন্তু একই সময় ধোনিকে প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছেন যুবরাজ সিংহ। অনুশীলন ম্যাচের পরেই যুবরাজ ধোনিকে তাঁর দেখা সেরা অধিনায়ক বলেছেন। আর দু’জনের খুনসুটির ভিডিও টুইট করেছেন যুবরাজ। যেন কথা না বলে বাবাকেই বার্তাটা পৌঁছে দিয়েছেন তিনি। এ বার থামা উচিত যোগরাজের। 

দেখুন ধোনি, যুবরাজের ভিডিও