তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী ই কে পলানীস্বামীর বিরুদ্ধে এফআইআর-এর নির্দেশ দিল নির্বাচন কমিশন। আরকে নগর বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনের আগে স্থানীয় ভোটারদের বিপুল ঘুষ দেওয়ার অভিযোগে কমিশন তাঁর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করার নির্দেশ দিয়েছে। শুধু পলানীস্বামী অবশ্য নন, তামিলনাড়ুর স্বাস্থ্য মন্ত্রী সি বিজয়বাসকর এবং এআইএডিএমকে (আম্মা ক্যাম্প) সহকারী সাধারণ সম্পাদক টিটিভি দিনকরণের বিরুদ্ধেও এফআইআর-এর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী থাকা অবস্থায় জয়ললিতা প্রয়াত হওয়ায়, তাঁর নির্বাচনী কেন্দ্র আরকে নগর শূন্য হয়েছিল। সেই আসনে উপনির্বাচন ঘোষিত হওয়ার পর আসনটির দখল নেওয়ার জন্য এআইএডিএমকে-র দুই শিবিরেই (পলানীস্বামী শিবির এবং পনীরসেলভম শিবির) জোর তৎপরতা শুরু হয়। পলানীস্বামীদের গোষ্ঠী অর্থাৎ এআইএ়ডিএমকে (আম্মা ক্যাম্প) আরকে নগরে প্রার্থী করেছিল শশিকলার ভাইপো টিটিভি দিনকরণকে। তাঁকে জেতানোর জন্য আরকে নগরের ভোটারদের মধ্যে এআইএডিএমকে (আম্মা ক্যাম্প) বিপুল পরিমাণে টাকা বিলি শুরু করে বলে অভিযোগ ওঠে। ঘুষ দেওয়ার ভিডিও ভাইরাল হয়। এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে নির্বাচন কমিশন আরকে নগর আসনের উপনির্বাচন স্থগিত করে দেয়। এ বার সেই ঘুষকাণ্ডের তদন্তের জন্য মুখ্যমন্ত্রী ই কে পলানীস্বামী, স্বাস্থ্য মন্ত্রী বিজয়বাসকর এবং এআইএডিএমকে (আম্মা ক্যাম্প) সহকারী সাধারণ সম্পাদক টিটিভি দিনকরণের বিরুদ্ধে এফআইআর করার নির্দেশও দিল কমিশন।

আরও পড়ুন:‘সবই গুজব’: রাষ্ট্রপতি পদের দৌড়ে থাকার জল্পনা নস্যাৎ করলেন সুষমা

উপনির্বাচনে দিনকরণ নিজে প্রার্থী হয়েছিলেন। তাই তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগের আঙুল সরাসরি উঠছে। বিজয়বাসকরের বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে আয়কর বিভাগ এমন কিছু নথি উদ্ধার করেছিল, যা থেকে টাকা বিলি করার প্রমাণ মিলেছিল বলে খবর। আর ভোটারদের মধ্যে টাকা বিলি যাতে নির্বিঘ্নে করা যায়, মুখ্যমন্ত্রী পলানীস্বামী নিজেই তার বন্দোবস্ত করেছিলেন বলে অভিযোগ।