আরুষি হত্যা মামলার রায় জানার পরে সেই খবর শেয়ার করতে গিয়ে গুলজারের লেখা একটা লাইন ফেসবুক স্ট্যাটাসে দিয়েছেন তাঁর কন্যা, পরিচালক মেঘনা গুলজার— ‘‘জিস দিন সময়নে আঁখে খোলি/ইনসাফ হোগা...’’

নয়ডার জোড়া খুনের ঘটনার ছায়া অবলম্বনে তৈরি তাঁর ছবি ‘তলবার’-এ ছিল এই গানটি। বৃহস্পতিবার ইলাহাবাদ হাইকোর্টের রায় শুনে কি মনে হচ্ছে অবশেষে ‘ইনসাফ’ হল? মেঘনা বললেন, ‘‘আমার ছবিতে গোটা কাহিনিটাই ছিল অসম্ভব আশাহীন। শুধু ছবির শেষে এই গানটায় আশার বার্তা ছিল। আর আমরা সবাই নিশ্চিত ছিলাম, সত্য প্রতিষ্ঠিত হবে। দেরি হতে পারে। কিন্তু হবেই। সেটাই হল। আজকের রায় তাই একটা বিগ রিলিফ।’’

ট্যুইটে তলোয়ার দম্পতির মুক্তিতে তাঁর খুশির খবর জানিয়েছেন ছবির কাহিনিকার বিশাল ভরদ্বাজও। তিনি লিখেছেন, ‘‘বিচারে দেরি মানে বিচার না পাওয়া নয়। আপ্লুত ও বড় নিশ্চিন্ত।’’ রায় শোনার পর থেকেই অনেকেই তাঁদের ফোন করছেন বলে জানালেন মেঘনা। তাঁর কথায়, ‘‘আমরা কেবল একটা সামান্য ভূমিকা পালন করেছি। সত্যের জয় অনিবার্য। যা সত্যি, তা প্রতিষ্ঠিত হবেই।’’

রাজেশ ও নুপূর তলোয়ারের মুক্তির পরে তাঁদের সঙ্গে দেখাও করতে চান মেঘনা। বললেন, ‘‘কবে দেখা করব সেটা ঠিক হয়নি। কিন্তু আমি ও বিশালজী দু’জনেরই ওঁদের সঙ্গে দেখা করার ইচ্ছে আছে।’’