প্রায় ৬০০ কর্মীকে ছাঁটাই করল উইপ্রো। তবে ছাঁটাইয়ের সংখ্যাটা ২০০০ পর্যন্তও পৌঁছতে পারে বলে সূত্রের খবর। কত সংখ্যক কর্মী ছাঁটাই করা হয়েছে সে বিষয়ে অবশ্য কোনও মন্তব্য করেনি সংস্থাটি।

কেন এমন সিদ্ধান্ত?

সংস্থা সূত্রে খবর, কর্মীদের বছরভর পারফরম্যান্স এবং ব্যবসায়িক স্বার্থের কথা ভেবেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তবে এটাকে ছাঁটাই প্রক্রিয়া বলতে নারাজ কর্তৃপক্ষ। এক বিবৃতিতে উইপ্রো জানিয়েছে, এটি একটি ‘পারফরম্যান্স অ্যাপ্রাইসাল’। প্রতি বছরই এই অ্যাপ্রাইসাল প্রক্রিয়াটি চলে। ফলে কর্মী ‘ছাঁটাই’য়ের সংখ্যাটি বছর বছর কম-বেশি হয়েই থাকে।

আরও পড়ুন: স্ত্রীর ফোনে গোয়েন্দা লাগানোয় জরিমানা

২০১৬-র ডিসেম্বরের হিসাব অনুযায়ী উইপ্রোর কর্মী সংখ্যা প্রায় ১ লক্ষ ৮০ হাজার। ক্লায়েন্টদের সঙ্গে কাজ করতে উইপ্রোর মতো সংস্থাগুলি তাদের কর্মীদের বিদেশে অস্থায়ী ওয়ার্কিং ভিসা দিয়ে পাঠায়। কিন্তু ভিসা নিয়ে কড়াকড়ি শুরু হওয়ায় ভারতের তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থাগুলিকে বেশ চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে হচ্ছে। ফলে এর প্রভাব কর্মীদের উপর পড়ছে। এ ছাড়া ব্যাপক মাত্রায় স্বয়ংক্রিয় প্রযুক্তির ব্যবহারে কর্মীদের চাহিদাও কমে যাচ্ছে। যার ফলে ভারতের তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থাগুলিকে বাধ্য হয়ে কর্মী ছাঁটাইয়ের পথে হাঁটতে হচ্ছে মত বিশেষজ্ঞদের।