স্কুল ফুটবলে অনূর্ধ্ব ১৪ রাজ্য মহিলা দলে সুযোগ পেল বোলপুর বাহিরী গ্রামের প্রিয়া থান্দার। ১৭ জানুয়ারি রাজ্য স্কুল দল পুণের ছত্রপতি শিবাজী স্টেডিয়ামে জাতীয় ফুটবল প্রতিযোগিতায় যোগ দিতে যাচ্ছে। সেই দলে থাকছে প্রিয়াও। বীরভূম থেকে একমাত্র সে-ই রাজ্য দলে সুযোগ পেয়েছে। তাই এই সুযোগ একেবারেই হাতছাড়া করতে রাজি নয় প্রিয়া। তাই প্রস্তুতি চলছে জোরকদমে।

বোলপুরের বাহিরী ব্রজসুন্দরী উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী প্রিয়া। বাবা সাজু থান্দার পেশায় রাজমিস্ত্রি। মেয়ের সাফল্যে খুশি হলেও মেয়ে ভিন্ রাজ্যে খেলতে যাবে ভেবে দুঃশ্চিন্তায় প্রিয়ার পরিবার। তিনি বলেন, ‘‘মেয়ের প্রস্তুতি আর স্কুলের সকলের সাহায্যেই আজ সে এই জায়গায় পৌঁছেছে।’’ প্রিয়ার গ্রামবাসী থেকে স্কুলের বন্ধুরাও এই সাফল্যে খুশি। অনেকেই বলাবলি করছেন, এ রকম একটা গ্রাম থেকে রাজ্যের হয়ে প্রিয়া প্রতিনিধিত্ব করছে, ভাবতেই পারছি না।

প্রিয়ার কোচ মলয় সেন বলেন, ‘‘বাহিরী স্কুলেরই ১৬ জনের মেয়ের দল গত বছর নভেম্বরে জেলার হয়ে প্রতিনিধিত্ব করে। তার মধ্যে প্রিয়া নির্বাচিত হয়।’’ গত তিন বছর ধরে প্রধান শিক্ষক প্রদীপকুমার মণ্ডলের সহায়তায় মলয়বাবু ফুটবল টিম তৈরি করেছেন। তবে মেয়েদের বেশির ভাগই দিন আনা দিন খাওয়া পরিবারের। অনেক সময় প্রশিক্ষণের উপযুক্ত খাবারই খেতে পায় না তারা। স্কুল যতটা সম্ভব চেষ্টা করে। ‘‘আর্থিক সহায়তা পেলে আরও কিছু জনকে তৈরি করা যাবে’’— বলছেন মলয়বাবু।