সিএবির প্রথম ডিভিশন লিগের ম্যাচে ভিন রাজ্যের ক্রিকেটার খেলানোর অভিযোগ উঠল। বাংলার ক্রিকেট প্রশাসন এই নিয়ে অত্যন্ত তৎপর হওয়া সত্ত্বেও কী ভাবে এমন অভিযোগ উঠছে, তা নিয়েই প্রশ্ন দেখা দিয়েছে স্থানীয় ক্রিকেট মহলে।

তপন মেমোরিয়াল ক্লাবের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ করেছে খিদিরপুর স্পোর্টিং ক্লাব। তাঁদের অভিযোগ তপন মেমোরিয়ালের ব্যাটসম্যান শাহবাজ আহমেদের বিরুদ্ধে। হরিয়ানার ফরিদাবাদ থেকে আসা এই ব্যাটসম্যানকে খেলানোর প্রতিবাদ করে সিএবিকে চিঠি দিয়েছে খিদিরপুর। অভিযোগ উঠেছে, শাহবাজ নাকি হরিয়ানার অনূর্ধ্ব-২৩ দলে এই বছরই খেলেছেন।

খিদিরপুর স্পোর্টিং ক্লাবের ক্রিকেট সচিব নীলাঞ্জন ভাদুড়ি জানিয়েছেন যে, তাঁরা খোঁজ নিয়ে দেখেছেন, শাহবাজ নাকি ফরিদাবাদের বাসিন্দা। অভিযোগ, সিএবির নিয়ম ভেঙেছে তপন মেমোরিয়াল ক্লাব। যার সঙ্গে আবার জড়িয়ে রয়েছেন সিএবি-রই এক গুরুত্বপূর্ণ কর্তা। নীলাঞ্জন বলেন, ‘‘আমি একশো শতাংশ নিশ্চিত যে ছেলেটি হরিয়ানার। সিএবির নিয়ম মেনে প্রত্যেকটি ক্লাব খেলছে। তাই ওদেরও সেই পথেই এগোতে হবে।’’

অভিযোগ জানানো হলেও এই ব্যাপারে কোনও নিশ্চিত আশ্বাস পাওয়া যায়নি সিএবির তরফ থেকে। নীলাঞ্জন আরও জানান, ‘‘শাহবাজের জন্যেই আমাদের ম্যাচে পিছিয়ে পড়তে হয়েছে। তা ছাড়া সিএবির টুর্নামেন্ট কমিটির প্রধানের দল তপন মেমোরিয়াল। তাই আদোও আমরা এর সুবিচার পাব কি না, এই ব্যাপারটা আমাকে ভাবাচ্ছে।’’

সিএবির যুগ্ম-সচিব অভিষেক ডালমিয়া বলেন, ‘‘খিদিরপুরের অভিযোগপত্র আমরা হাতে পেয়েছি। সিএবির কাছে প্রত্যেক ক্লাবই সমান। এই ক্ষেত্রেও যাচাই করে দেখা হবে।’’

সিএবির এই ম্যাচে দু’ইনিংসেই ভাল রান করেছেন শাহবাজ। দ্বিতীয় ইনিংসে ১৫২ রানের ইনিংস খেলে খিদিরপুরকে পিছনে ফেলে দেন তিনিই। নীলাঞ্জন আরও বলেন, ‘‘প্রত্যেক ক্রিকেটারকে নথিভুক্ত করার সময় তাদের পরিচয়পত্র দিতে হয়। আমরাও তাই করেছি। তাই আশা করব প্রত্যেক ক্লাবের ক্ষেত্রেই সমান নিয়ম খাটা দরকার। আমাদেরও ক্ষমতা রয়েছে বাইরের ক্রিকেটার খেলানোর। আমরা কিন্তু তা করিনি।’’