শোকস্তব্ধ ইরাক শিবির! ওষুধের অভাবে সাত শিশুর মর্মান্তিক মৃত্যুর খবরে ইংল্যান্ড ম্যাচের আটচল্লিশ ঘণ্টা আগে মানসিক ভাবে বিপর্যস্ত মহম্মদ দাউদ-রা।

অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপে ‘এফ’ গ্রুপে দু’ম্যাচে চার পয়েন্ট নিয়ে এই মুহূর্তে দ্বিতীয় স্থানে ইরাক। অঘটন না ঘটলে শেষ ষোলোয় তাদের খেলার সম্ভাবনা পাকা। কিন্তু এই মর্মান্তিক ঘটনায় ইরাক অন্দরমহলের ছবিটাই বদলে গিয়েছে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় যুবভারতী সংলগ্ন অনুশীলনের মাঠে ইংল্যান্ড ম্যাচের প্রস্ততিতে নেমেছিল ইরাক দল। অনুশীলন শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই দেখা গেল দাউদ ও আলি ইবাদি বুকের কাছে একটি পোস্টার ধরে দাঁড়িয়ে পড়েছে সাইড লাইনের ধারে। পোস্টারের মাধ্যমে তাদের আবেদন, ‘ওষুধের অভাবে আমাদের দেশে সাত শিশুর মৃত্যু হয়েছে। ওষুধ দিয়ে আমাদের সাহায্য করুন’।

শুধু শিশু মৃত্যুর ঘটনাই নয়, দাউদ-দের উদ্বেগ বাড়ছে ইরাকের সাম্প্রতিক পরিস্থিতি নিয়েও। চলতি মাসের শুরুতেই মার্কিন সেনাবাহিনীর উপর হামলা চালিয়েছে জঙ্গিরা। সেই ঘটনায় একাধিক সেনা প্রাণ হারিয়েছে। সন্দেহের তির ইসলামিক স্টেটস অফ ইরাক অ্যান্ড সিরিয়া (আইসিস) জঙ্গিদের দিকেই।

আরও পড়ুন: ভবিষ্যতের নেইমার আজ ভারতের বিরুদ্ধে

ইরাকের সেনাবাহিনীর সঙ্গেও সংঘর্ষ তীব্র হয়েছে জঙ্গিদের। উত্তপ্ত পরিস্থিতিতে ক্রমশ বাড়ছে গৃহযুদ্ধের আশঙ্কা। সবচেয়ে ভয়াবহ অবস্থা রাজধানী বাগদাদ এবং কুর্দিস্তানের। প্রতি মুহূর্তেই মৃত্যুর আতঙ্ক। সেই উদ্বেগ দূরে সরিয়েই অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপে খেলছিল দাউদ-রা। কিন্তু এই শিশু মৃত্যুর ঘটনা তাদের পুরোপুরি বিপর্যস্ত করে দিয়েছে।