সিকিম গভর্নর্স গোল্ড কাপ সেমিফাইনালে শুক্রবার প্রতিপক্ষ মুম্বইয়ের দল ওএনজিসি। তার আগে মাঠ নিয়ে রাতের ঘুম ছুটেছে মোহনবাগানের।

গ্যাংটকের পালজোর স্টেডিয়ামের মাঠে অসমান বাউন্স। যার জন্য ভুগতে হয়েছে প্রথম ম্যাচে। বৃহস্পতিবার ফোনে যোগাযোগ করা হলে মোহনবাগান কোচ শঙ্করলাল চক্রবর্তী বললেন, ‘‘মাঠে অসমান বাউন্স রয়েছে। ফলে বল যখন তখন লাফিয়ে উঠছে। যার ফলে অনেক সময় রিসিভ করতে গিয়ে তা পা থেকে বেরিয়ে যাচ্ছে। প্রথম ম্যাচে এর জন্য সমস্যা হয়েছে। দেখা যাক, সেমিফাইনালে এর মোকাবিলা কী ভাবে করতে পারে ছেলেরা।’’

কোয়ার্টার ফাইনাল জিততে বুধবার ঘাম ছুটে গিয়েছিল আনসুমানা ক্রোমা, দিপান্দা ডিকা-দের। সেমিফাইনালে ওএনজিসি-র বিরুদ্ধে শুরুতেই গোল করে এগিয়ে যেতে চায় মোহনবাগান। মোহনবাগান কোচ বলছেন, ‘‘প্রথম ম্যাচে ইনজুরি টাইমে করা গোলে জিততে হয়েছে আমাদের। কাজেই সেমিফাইনালে শুরুতেই গোল তুলে নিতে হবে।’’ বিপক্ষ ওএনজিসি দলে রয়েছেন যতীন বিস্ত-সহ জাতীয় স্তরে সাড়া ফেলে দেওয়া বেশ কয়েক জন খেলোয়াড়। যে প্রসঙ্গে মোহনবাগান কোচ বলছেন, ‘‘ওএনজিসি-র ম্যাচ দেখেছি। ওদের আক্রমণ ভাগ বেশ ভাল। তাই ফাইনালে যেতে গেলে আমাদের রক্ষণকে সতর্ক থাকতে হবে।’’ মোহনবাগান শিবিরে প্রথম ম্যাচ খেলতে গিয়ে ঊরুর পেশিতে চোট পেয়েছেন রাইট ব্যাক অরিজিৎ বাগুই। তাঁকে সুস্থ করে তোলার চেষ্টা হচ্ছে।