বাম আমলে ২১ জুলাইয়ের ঘটনা নিয়ে নতুন জল্পনা উস্কে দিল রাজ্যসভার তৃণমূল সাংসদ মণীশ গুপ্তের মন্তব্য।

তৃণমূলের ‘শহিদ সমাবেশে’র প্রস্তুতি উপলক্ষে রবিবার হাজরা মোড়ে একটি সভায় বিদ্যুৎমন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘‘১৯৯৩ সালের ২১ জুলাই বামফ্রন্ট সরকারের পুলিশ আমাদের ১৩ জনকে খুন করেছিল। তাতে খুব খুশি হয়েছিল রাজ্য প্রশাসন।’’ শোভনদেবের বক্তৃতার সময়ে মঞ্চে ছিলেন মণীশবাবু, যিনি ১৯৯৩ সালের ওই ঘটনার সময়ে ছিলেন রাজ্যের স্বরাষ্ট্রসচিব। শোভনদেবের পরে মণীশবাবু এ দিন নিজের বক্তৃতায় ১৯৯৩ সালের ওই ঘটনার প্রসঙ্গ টেনে বলেন, ‘‘পরে আমরা জানতে পারি, বিশাল ষড়যন্ত্রকে কেন্দ্র করে ওই হত্যাকাণ্ড ঘটে।’’ প্রসঙ্গত, ২১ জুলাইয়ের ঘটনার তদন্তের জন্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে গঠিত সুশান্ত চট্টোপাধ্যায় কমিশনের শুনানিতে মণীশবাবু বলেছিলেন, তাঁর কিছু মনে নেই।

সিপিএম নেতারা বরাবরই দাবি করে এসেছেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে যুব কংগ্রেস সে দিন রাস্তায় পুরোদস্তুর জঙ্গি কার্যকলাপ করে এমন পরিস্থিতি তৈরি করেছিল, যাতে পুলিশ গুলি চালাতে বাধ্য হয় এবং সেই ঘটনাকে সরকারের বিরুদ্ধে ব্যবহার করা যায়। মণীশবাবুর এ দিনের বক্তব্য সেই ‘ষ়ড়যন্ত্রে’র দিকেই ইঙ্গিত করছে কি না, স্বভাবতই তা নিয়ে জল্পনা তৈরি হয়েছে। পরে এই বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে মণীশবাবু অবশ্য বলেন, ‘‘আমি সভায় যা বলেছি, সেটাই শেষ। আর কিছু বলব না।’’