সরকারি বাসের চালকদের প্রশিক্ষণ তো আছেই। মুর্শিদাবাদে দৌলতাবাদের ভয়াবহ দুর্ঘটনা থেকে ‘শিক্ষা’ নিয়ে উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণ নিগম (এনবিএসটিসি) বেসরকারি চালকদেরও সচেতনতার পাঠ দিতে চায় বলে বুধবার জানান সংস্থার চেয়ারম্যান মিহির গোস্বামী। সরকারের পাশে দাঁড়াচ্ছে জয়েন্ট কাউন্সিল অব বাস সিন্ডিকেটস-ও।

এ দিন উল্টোডাঙা ডিপোয় বহরমপুর ডিভিশনের ২০ জন চালককে সচেতনতার পাঠ দেওয়ার ব্যবস্থা করে এনবিএসটিসি। সেখানেই কর্তৃপক্ষ জানান, সরকারি চালকদের পাশাপাশি বেসরকারি পরিবহণের সঙ্গে যুক্ত চালকেরা শিবিরগুলিতে যোগ দিতে পারেন। কয়েক দিন আগে বহরমপুরে এই ধরনের শিবিরে প্রায় ৭০ জন বেসরকারি বাসচালক যোগ দিয়েছিলেন। আজ, বৃহস্পতিবার ধর্মতলার ওয়াই চ্যানেলে গাড়ি চালানোর সময়ে মোবাইল ব্যবহার নিয়ে চালকদের বোঝাবেন তিনটি সংগঠনের কর্তারা। মোবাইল ব্যবহার নিয়ে পথচারীদেরও সচেতন করা হবে বলে জানান জয়েন্ট কাউন্সিল অব বাস সিন্ডিকেটসের সাধারণ সম্পাদক তপন বন্দ্যোপাধ্যায়। এনবিএসটিসি-র প্রশিক্ষণ শিবিরে পাওয়ার পয়েন্টে উপস্থাপনার মাধ্যমে এ দিন সচেতন করা হয় চালকদের। পরবর্তী কালে গাড়িতে বসে হাতে-কলমে চালকদের পাঠ দেবেন প্রশিক্ষকেরা। কয়েক জন চালকের আক্ষেপ, অনেক আগে থেকে এই ধরনের শিবিরের আয়োজন করা হলে ভাল হত। তবে এনবিএসটিসি-র কর্তাদের দাবি, এই ধরনের শিবিরের আয়োজন অনেক আগে থেকেই করা হচ্ছে। শুধু জরিমানা করেই দুর্ঘটনা সংক্রান্ত সমস্যার সমস্যার সমাধান যে হবে না, তা মানছেন কর্তারা।