দার্জিলিং-সঙ্কটে হঠাৎই এক নতুন বন্ধু পেয়ে গেলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শিবসেনার মুখপত্র ‘সামনা’র সম্পাদকীয়তে এ দিন দার্জিলিং প্রসঙ্গ তোলা হয়েছে। দেশের বিভিন্ন অংশে যে গোলমাল চলছে, সেই সব জায়গার উল্লেখ করতে গিয়ে কাশ্মীরের পাশাপাশি সেখানে পাহাড় প্রসঙ্গও তোলা হয়।

মমতা দাবি করেন, বিমল গুরুঙ্গদের কাছে সব ধরনের অস্ত্র জমা করা আছে। ফলে আন্দোলন আরও বেশি তীব্র হচ্ছে। নিরাপত্তাবাহিনীর উপরে মোর্চা পেট্রোল বোমা ছুড়ছে বলেও তাঁর অভিযোগ। এই সূত্রে তৃণমূল নেতৃত্বের দাবি, মোর্চাকে অশান্তি বাধাতে পরোক্ষে হলেও উস্কানি দিচ্ছে বিজেপি। এই প্রেক্ষিতে ‘সামনা’র সম্পাদকীয় তাৎপর্যপূর্ণ। উদ্ধব ঠাকরেরা বিজেপির শরিক। কিন্তু বহু ক্ষেত্রেই দুই দলের মধ্যে এখন মতভেদ রয়েছে। এই সম্পাদকীয়তেও সেটাই ফুটে উঠেছে। সম্পাদকীয়তে গুরুঙ্গদের কাছে অস্ত্র থাকার কথা মেনে নিয়ে বলা হয়েছে, মমতার সঙ্গে যতই রাজনৈতিক মতভেদ থাকুক, দার্জিলিঙের আগুনে যেন কেউ আঁচ না পোহায়।

তৃণমূলের বক্তব্য, উদ্ধবের সঙ্গে মমতার সম্পর্ক ভাল। তাই এমন দিনে তিনি রাজনৈতিক রং না দেখে তৃণমূলকে নৈতিক সমর্থন জানিয়েছেন।