রোজ রোজ টিফিন নিয়ে কি বায়না জুড়ে দেয় আপনার  বাড়ির পুঁচকেরা? তবে হাল ছাড়বেন না। ওদের মন বুঝেই এবার মুখরোচক খাবার বানিয়ে ফেলুন!

 

গন্ধরাজ লেবুর পাস্তা

উপকরণ: পাস্তা ৫০০ গ্রাম, সাদা তেল ১ চামচ, মাখন ১০০ গ্রাম, কাসুন্দি ২ চামচ, গ্রেটেড চিজ পরিমাণমতো, গোলমরিচ গুঁড়ো ১ চামচ, নুন পরিমাণমতো, গন্ধরাজ লেবু ১টি, লাল হলুদ সবুজ ক্যাপসিকাম ৩টি, পেঁয়াজ ২টি, রসুন ৪ কোয়া, আদাকুচি ১ চামচ, সিদ্ধ ভুট্টাদানা ৪ চামচ, ধনেপাতা ১ আঁটি, পুদিনাপাতা আধ আঁটি, মাখন ৫০ গ্রাম।

পদ্ধতি: প্রথমে একটি পাত্রে জল ফুটতে দিয়ে তার মধ্যে এক চামচ সাদা তেল ও অল্প নুন দিতে হবে। ওই জলে পাস্তা দিয়ে সিদ্ধ করতে হবে। এ বার ফ্রায়িং প্যানে মাখন গরম করে, তার মধ্যে পেঁয়াজ ও রসুন কুচি দিয়ে ভাল করে ভেজে নিন। তার পর আদা কুচি, সিদ্ধ ভুট্টার দানা, মাখন, ধনেপাতা, পুদিনাপাতা কুচি দিয়ে সামান্য ভাজতে হবে। এ বার স্বাদমতো নুন দিয়ে, গোলমরিচ গুঁড়ো, গন্ধরাজ লেবুর রস ও সামান্য জল দিয়ে ঢেকে রেখে দিন। অন্য একটি পাত্রে সিদ্ধ করে রাখা পাস্তার সঙ্গে ওই মিশ্রণটা ভাল করে মিশিয়ে দিন। তার পর অন্য একটি পাত্রে ৪ চামচ মাখন, ১ চামচ গোলমরিচ গুঁড়ো, ২ চামচ কাসুন্দি ও লেবুর রস দিয়ে একটা সস তৈরি করে ওই পাস্তার উপর ঢালতে হবে। পাস্তার উপর চিজ গ্রেট করে ছড়িয়ে দিন। এ বার সরু লম্বা-লম্বা করে কাটা ক্যাপসিকাম ও গন্ধরাজ লেবু দিয়ে সাজিয়ে দিলেই তৈরি হয়ে যাবে গন্ধরাজ লেবুর পাস্তা।

 

পাউরুটির ফ্রুট রোল

পাউরুটির ফ্রুট রোল

উপকরণ: মিল্ক ব্রেড ১টি, আপেল বড় ১টা, কালো আঙুর ২০০ গ্রাম, আম ১টা,  ব্রাউন সুগার, কনডেন্সড মিল্ক পরিমাণমতো, দারচিনি পাউডার ১ চামচ, চিনি ও নুন স্বাদমতো।

পদ্ধতি: একটি পাত্রে পরিমাণমতো ব্রাউন সুগার ও এক কাপ জল দিয়ে ফুটিয়ে ক্যারামেল তৈরি করে নিন। এর মধ্যে আপেল, আমের টুকরো আর আঙুর সামান্য নুন দিয়ে পাক করতে হবে। ঠান্ডা হয়ে গেলে উপর থেকে দারচিনি পাউডার ছড়িয়ে দিতে হবে। এ বার পাউরুটির চার ধার ফেলে দিয়ে, তাকে বেলে নিয়ে তার মধ্যে তৈরি করা মিশ্রণটি দিয়ে দিতে হবে। এর পর পাউরুটিকে রোলার দিয়ে শেপ করে নিয়ে প্যানে সামান্য মাখন গরম করে অল্প ভেজে নিন। রোলটিকে রেখে উপর থেকে কনডেন্সড মিল্ক ভাল করে ছড়িয়ে দিন। তার পর চেরি দিয়ে সাজিয়ে দিন। ব্যস, তৈরি হয়ে গেল পাউরুটির ফ্রুট রোল।

 

চিজ ক্যাডবেরি টোস্ট ও পনিরের ডিপ ফ্রিজার সন্দেশ

চিজ ক্যাডবেরি টোস্ট ও পনিরের ডিপ ফ্রিজার সন্দেশ

টোস্টের উপকরণ: ব্রাউন ব্রেড ১টি, চিজের কিউব ৫টি, মাখন ১ চামচ, ক্যাডবেরি ১টি, চকোলেট সস অথবা চকোলেট স্প্রেড ১ চামচ।

পদ্ধতি: প্রথমে দু’টি পাউরুটির পিসকে গোল আকারে কেটে নিতে হবে। এ বার একটি গোল অংশ থেকে আরও একটি গোলাকার ছোট অংশ বের করতে হবে। একটি পাত্রে মাখন গরম করে বড় পাউরুটির টুকরোটির এক পিঠ ভাল করে সেঁকে নিন। তার পর অন্য পাত্রে সেঁকা পাউরুটি রেখে উল্টো পিঠে চিজ গ্রেট করে নিতে হবে। তার উপর চকোলেট সস দিতে হবে। এ বার অন্য পাউরুটির দু’টি গোলাকার অংশ দিয়ে বড় অংশটি ঢাকা দিতে হবে। তার পর প্যানে পাউরুটিগুলো রেখে ঢাকনা দিয়ে এক মিনিট গরম করে নিতে হবে। আর একটি পাত্রে টোস্টটি রেখে উপরে চকোলেট সস ছড়িয়ে দিন। সবশেষে তার উপর ক্যাডবেরির টুকরো দিয়ে সাজিয়ে দিন।

 

পনিরের ডিপ ফ্রিজার সন্দেশ

উপকরণ: পনির ২০০ গ্রাম, খোয়া ক্ষীর ৯৫০ গ্রাম, চিনি পরিমাণমতো, গোলাপজল ২ চামচ।

পদ্ধতি: প্রথমে পনির একটি পাত্রে রেখে, খুব ভাল করে চটকে মেখে নিন। এর পর মাখা পনিরের মধ্যে খোয়া ক্ষীর ও চিনি মিশিয়ে, উপর থেকে গোলাপজল ছড়িয়ে দিতে হবে। তার পর মেখে রাখা পনিরকে ফয়েল পেপারের মধ্যে রোল আকারে গড়তে হবে। ফয়েল পেপারের দু’দিকে মাথা মুড়ে রাবার ব্যান্ড দিয়ে আটকে ডিপ ফ্রিজারে ৩০ থেকে ৪০ মিনিট মতো রেখে দিতে হবে। এর পর ফ্রিজ থেকে বের করে একটি পাত্রে ছুরি দিয়ে ছোট-ছোট পিস করে রাখবেন। উপরে সুন্দর করে সাজিয়ে দেবেন চেরি।

 

আমের প্যানকেক

আমের প্যানকেক

উপকরণ: ময়দা ১ বাটি, দুধ পরিমাণমতো, নুন স্বাদমতো, খাওয়ার সোডা আধ চামচ, বেকিং পাউডার ১ চামচ, চিনি ও আমের পাল্প পরিমাণমতো, সাদা তেল ১ চামচ, মধু ১ চামচ, ছোট এলাচ গুঁড়ো ১ চামচ।

পদ্ধতি: একটি পাত্রে ময়দা, দুধ, চিনি, নুন, বেকিং পাউডার ও বেকিং সোডা মিশিয়ে মিশ্রণ তৈরি করতে হবে। এ বার আমের পাল্প ওই মিশ্রণে দিন। তার পর ফ্রায়িং প্যান গরম করে, তাতে খুব অল্প সাদা তেল মাখিয়ে নিতে হবে। একটি গোল হাতা দিয়ে ওই আমের মিশ্রণ থেকে এক হাতা করে মিশ্রণ তেলে দিতে হবে। ভাজা হলেই তৈরি হয়ে যাবে আমের প্যানকেক। অন্য একটি পাত্রে আমের পাল্প ও মধু মিশিয়ে জ্যাম তৈরি করে, প্যানকেকের উপর ছড়িয়ে পরিবেশন করুন।

 

অনুলিখন: মধুমন্তী পৈত চৌধুরী

ছবি: শুভেন্দু চাকী