Anandabazar Patrika Read Latest Bengali News, Breaking News in Bangla from West Bengal's Leading Newspaper

যৌন হেনস্থা না করলেও অশ্লীল কথা বলত বাবা, এবার মুখ খুললেন শ্বেতার মেয়ে

পলক এবং শ্বেতা তিওয়ারি

সৎ বাবা মেয়েকে অশ্লীল ছবি দেখাতেন। অশালীন ইঙ্গিতও করতেন ১৯ বছরের মেয়েকে দেখে। মত্ত হয়ে মেয়েকে মারধর করার মতো সব অভিযোগই পুলিশের কাছে এফআইআর দায়ের করে জানিয়েছিলেন মা শ্বেতা তিওয়ারি।তবে অভিনেত্রী মায়ের করা এ সব অভিযোগ নিয়ে প্রথমে চুপচাপই ছিলেন পলক। কিন্তু সোমবার রাতে ইনস্টাগ্রামেএকটা পোস্ট করেন। আর সেই পোস্ট থেকেই জানা গেল, সৎ বাবা অভিনব কোহালি ঠিক কী কী করতেন তাঁর মেয়ে ও স্ত্রীর সঙ্গে!

দুঃসময়ে যাঁরা পাশে ছিলেন, তাঁদের সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে ওই পোস্টে পলক লিখেছেন, ‘আমার কিছু জিনিস স্পষ্ট করে বলার রয়েছে।আমি পলক তিওয়ারি।একাধিক বার গার্হস্থ্য হিংসার শিকার হয়েছি।’ এ ভাবে শুরু করে পলক সরাসরি তাঁর সৎ বাবার বিরুদ্ধে মারধরের অভিযোগ তোলেন। তিনি লিখছেন, ‘আমাকে মারা হলেও এর আগে আমার মাকে কখনই মারধর করেনি অভিনব কোহালি। যে দিন মা এফআইআর করে, সে দিনই মাকে মারধর করা হয়। এই প্রথম।’ এর পরেই পলক তাঁর মা শ্বেতার পাশে দাঁড়ানোর বার্তা দিয়ে লিখেছেন, ‘আপনাদের কোনও ধারণা নেই, দু’টি বিয়েতেই আমার মাকে কী পরিমাণ অত্যাচার সহ্য করতে হয়েছে। তাই খুব অল্প জেনে তা নিয়ে মন্তব্য বা আলোচনা করার কোনও অধিকার আপনাদের নেই।’পলকের আরও বক্তব্য,‘সময় হয়েছে মায়ের পাশে দাঁড়ানোর। ওঁর মতো মনের জোর আমি আর কারও মধ্যে দেখিনি। নিজের চোখে মায়ের সংগ্রামের প্রতিটি মুহূর্ত দেখেছি আমি।’

অভিনবের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ প্রসঙ্গে পলক লেখেন,‘আমাকে শারীরিক ভাবে কখনওই নির্যাতন করেননি অভিনব।তবে তিনি ধারাবাহিক ভাবে আমার প্রতি অশ্লীল মন্তব্য করতেন যা বাবা হিসেবে একেবারেই অশোভনীয়।’

আরও পড়ুন:শাড়ি পরে মহিলার সাজে আয়ুষ্মান!

 

 

দু’দিন ধরেই বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় ওই ঘটনা নিয়ে নানা রটনায় বিরক্ত পলক। ইনস্টাতেই ক্ষোভ উগরে দিয়ে তিনি লেখেন, ‘সোশ্যাল মিডিয়ার আয়না দিয়ে আমাদেরকে বিচার করা উচিত নয়। একজন গর্বিত সন্তান হিসেবে আজ আমি সবাইকে বলতে চাই আমার মায়ের মতো শ্রদ্ধেয় ব্যক্তিত্ব আর দু’টি নেই। স্বনির্ভর এই মানুষটির জীবন কাটানোর জন্য কোনও পুরুষের প্রয়োজন হয় না। পরিবারে তথাকথিত পুরুষের ভূমিকা আমি আমার মাকেই সারাজীবন নিতে দেখেছি।’

পলকের ওই দীর্ঘ পোস্টের কমেন্ট সেকশনে নেটিজেনরা প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছেন। কেউ লিখেছেন,‘মায়ের পাশে এভাবে দাঁড়ানোর জন্য আমরা গর্বিত।’আবার কেউ বা লিখেছেন,‘শক্ত থাকো পলক।তুমিই আমার অনুপ্রেরণা।’তবে, এখনও পর্যন্ত এই ঘটনা নিয়ে কোনও প্রতিক্রিয়া জানাননি বছর আটত্রিশের শ্বেতা।

আরও পড়ুন:স্বামীর বিরুদ্ধে নিগ্রহের অভিযোগ করলেন অভিনেত্রী শ্বেতা তিওয়ারি

 

২০১৩-য় অভিনেতা অভিনব কোহালির সঙ্গে বিয়ে হয় শ্বেতার। ২০১৬-য় তাঁদের সন্তান হয়, রেয়ানশ। তবে তার আগে ১৯৯৮-তে ভোজপুরী অভিনেতা রাজা চৌধুরীরকে বিয়ে করেছিলেন শ্বেতা। পরে রাজার বিরুদ্ধে আদালতে নির্যাতনের মামলা করেছিলেন তিনি। ২০০৭-এ রাজার সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। রাজা-শ্বেতার সন্তান এই পলক। 


Anandabazar Patrika Read Latest Bengali News, Breaking News in Bangla from West Bengal's Leading Newspaper