স্বামীর বিরুদ্ধে গার্হস্থ হিংসার একাধিক অভিযোগ নিয়ে পুলিশের কাছে এফআইআর দাখিল করলেন অভিনেত্রী শ্বেতা তিওয়ারি। রবিবার দুপুর ১টা নাগাদ মুম্বইয়ের সমতানগর থানায় মা এবং মেয়ের সঙ্গে দেখা যায় তাঁকে। তার পরেই জানা যায়, স্বামী অভিনব কোহালির বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছেন শ্বেতা। স্ত্রীর করা অভিযোগের ভিত্তিতে অভিনবকে থানায় ডেকে জিজ্ঞাসাবাদও করা হয়। কোনও কোনও সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে, তাঁকে গ্রেফতার করে তদন্ত চলছে।

রবিবার দুপুরে শ্বেতা তাঁর মা এবং মেয়েকে নিয়ে সমতানগর থানায় যান। স্পট বয় নামের একটি ম্যাগাজিনে প্রকাশিত সংবাদ অনুযায়ী, সেখানে শ্বেতা তাঁর স্বামীঅভিনবের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ জানিয়ে এফআইআর দায়ের করেন।সেই অভিযোগপত্রে ‘কসৌটি জিন্দেগি কে’র অভিনেত্রী জানান, ইদানীং তাঁর স্বামীরমদের প্রতি অতিরিক্ত আশক্ত হয়ে পড়েছিলেন। সে কারণেই সংসারে অশান্তি। শুধু তাই নয়, শ্বেতার আগের পক্ষের মেয়ে পলককে মদ্যপ অবস্থায় মারধরও করেন অভিনব। এ নিয়ে বলতে গেলে ধাক্কাধাক্কি করা হয় শ্বেতাকে। তাঁর আরও অভিযোগ, পলককে মাঝে মাঝে মডেলদের অশ্লীল ছবিও দেখাতেন অভিনব। সঙ্গে গালিগালাজ করার অভিযোগও লেখা হয় এফআইআরে।

 

শ্বেতার অভিযোগের ভিত্তিতে এর পর পুলিশ অভিনবের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির একাধিক ধারায় মামলা রুজু করে। শ্লীলতাহানি, মারধর, ধাক্কাধাক্কি, গালিগালাজ করার মতো অভিযোগও রয়েছে সেখানে। থানায় ডেকে পাঠানো হয় অভিনবকে। তাঁকে ঘণ্টাচারেক ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। স্পটবয়ের খবর অনুযায়ী, এর পর অভিনবকে ছেড়ে দেয় পুলিশ। বিষয়টি আদালতে নিষ্পত্তি হবে বলে জানানো হয় বলে পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে। তবে বলিউড লাইফ নামে অন্য একটি সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে, অভিনবকে প্রথমে আটক করা হয়। পরে তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলেও ওই সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে। তবে এ বিষয়ে এখনও পর্যন্ত মুখ খোলেননি শ্বেতা বা তাঁর স্বামী।

আরও পড়ুন:‘আমি প্রচণ্ড দেশভক্ত’, পাক মহিলার অভিযোগের উত্তরে প্রিয়ঙ্কার জবাব মন জিতল নেটিজেনদের

 

প্রথম স্বামী রাজা চৌধুরী এবং শ্বেতা তিওয়ারি

তবে বলিউডের একটা সূত্র জানাচ্ছে, ইদানীং শ্বেতা এবং অভিনবের সম্পর্ক কিছুটা হলেও চিড় ধরেছিল।২০১৩-য় অভিনেতা অভিনব কোহালির সঙ্গে বিয়ে হয় শ্বেতার। ২০১৬-য় তাঁদের সন্তান হয়, রেয়ানশ। তবে তার আগে ১৯৯৮-তে ভোজপুরী অভিনেতা রাজা চৌধুরীরকে বিয়ে করেছিলেন শ্বেতা। পরে রাজার বিরুদ্ধে আদালতে নির্যাতনের মামলা করেছিলেন তিনি। ২০০৭-এ রাজার সঙ্গে তাঁর বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। রাজা-শ্বেতার সন্তান পলক। সেই পলককে মারধর করার অভিযোগ নিয়েই এ বার অভিনবের বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে গিয়েছিলেন শ্বেতা।

আরও পড়ুন: ‘আমি কি কোনও দিন রোগা ছিলাম?’