Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৯ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied

উৎসবের গ্যালারি

ভিড় থেকে দূরে চলুন ঘুরে আসি এই অজানা ঠিকানার খোঁজে

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১৭:৫৫
কলকাতার দুর্গাপুজো এখন আর ষষ্ঠী থেকে দশমীর গণ্ডির মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। প্রতিমা দর্শনে দ্বিতীয়া থেকেই প্যান্ডেলে প্যান্ডেলে ভিড়। পুজোয় তীব্র যানজট আর কোলাহলে আপনি নাজেহাল?

পুজোয় লম্বা লাইন ঠেলে ঠাকুর দেখায় তেমন শখ নেই। দেবী ও প্যান্ডেল দর্শনের জন্য অনলাইনের বিভিন্ন পেজ তো রয়েছেই। আসন্ন পুজোর ছুটিতে প্রিয়জনের সঙ্গে কলকাতার আশপাশে একটা ট্যুর প্ল্যান করলে কেমন হয়? আপনার জন্য রইল কিছু জানা-অজানা জায়গার সুলুকসন্ধান।
Advertisement
মুর্শিদাবাদ: পুজোয় ঘুরে আসুন সিরাজ–উদ–দৌল্লার মুর্শিদাবাদ থেকে।হাজারদুয়ারি, ইমামবাড়া, মদিনা মসজিদ, নবাব ওয়াসিফ আলি মির্জার নিউ প্যালেস, কী নেই সেখানে।

তাজপুর: শহুরে ব্যস্ততা, দূষণ আর ভিড় থেকে অনেক দূরে তাজপুরের সমুদ্র অনেক শান্ত ও ফাঁকা। ঢেউয়ের আনাগোনা আর  নির্নিমেষ শান্তির মধ্যে কটা দিন নিজের পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাতে আসুন তাজপুর সৈকতে।
Advertisement
পারডি: ঘুরে আসুন পুরুলিয়ার অজানা গন্তব্য পারডি-চিরুগুরা গ্রাম থেকে।পাহাড়ের মাঝে রয়েছে ছোট পারডি ড্যাম।ড্যামের জলের উপর সবুজ পাহাড়ের প্রতিবিম্ব দেখে আপনার মন ভরে যাবে।

বাঁকিপুট: ফাঁকা সমুদ্র সৈকত, মধ্যে মধ্যে দু-একটা লাল কাঁকড়া, ঝাউবন আর দিগন্ত বিস্তৃত নীল জল। হাওড়া থেকে ট্রেনে কাঁথি পৌঁছে ট্যাক্সি নিয়ে চলে যাবেন বাঁকিপুট।

সোনাঝুরি:খোয়াইয়ের দিকে এগিয়ে যাওয়া রাস্তার দু’দিকে সোনাঝুরি গাছের জঙ্গলে  ভ্রমণ, খোয়াইয়ের হাটে অনেক কেনাকাটা, সঙ্গে বাউল গান।যেতে পারেন  কিলোমিটার দূরের বল্লভপুর অভয়ারণ্য়ে।

বড়ন্তি: আসানসোল থেকে আধ ঘণ্টা দূরে পাহাড়-জঙ্গলঘেরা মুরাডি হ্রদের নীল জলের সৌন্দর্যে ভরপুর এই গ্রাম আপনার মন কেড়ে নেবেই। সেগুন-মহুয়ার নিস্তব্ধ জঙ্গলে ঢুকলে দেখা পেয়ে যেতে পারেন নানা প্রাণীর।

পারমাদন: বনগাঁ থেকে মাত্র ২৮ কিমি দূরে পারমাদনের আর এক নাম বিভূতিভূষণ ওয়াইল্ডলাইফ স্যাংচুয়ারি। সুন্দরী ইছামতীর তীরে অর্জুন, শিমুল গাছের ছায়ায় শান্ত ভাবে দিনটা কাটিয়ে সন্ধেবেলায় যেতেই পারেন বোটিংয়ে। এই জঙ্গলে দেখা মিলবে প্রায় ২৫০টি হরিণ। এ ছাড়াও আছে শঙ্খচিল, নীলকণ্ঠ, ফুলটুসির মতো বহু পাখি।

বিষ্ণুপুর: বাঁকুড়ার এই শহরটি মন্দিরগাত্রে অপূর্ব টেরাকোটার কাজ ও বালুচরি শাড়ির জন্য বিখ্যাত।রাসমঞ্চ, জোড়বাংলা মন্দির, পঞ্চরত্ন মন্দির অবশ্যই দেখবেন।

হেনরি আইল্যান্ড: দক্ষিণ ২৪ পরগনার বকখালির কাছে অবস্থিত এই দ্বীপ। এখানে একই সঙ্গে আপনি সমুদ্র ও ম্যানগ্রোভের জঙ্গলের মনোরম পরিবেশ উপভোগ করতে পারবেন।

টাকি: কলকাতা থেকে প্রায় ২০০ কিলোমিটার দূরে ইছামতী নদীর পারে অবস্থিত এই পর্যটন কেন্দ্রটি। এই নদীর এক পারে বাংলাদেশের দেভাটা ও কালিগঞ্জ, অন্য পারে টাকি। অল্প খরচে ছুটি কাটানোর আদর্শ জায়গা।