ছ’বার বিভিন্ন বিভাগে মনোনয়ন পেয়েছেন। কিন্তু, এ বারও গ্র্যামির মঞ্চে শিকে ছিড়ল না অনুষ্কা শঙ্করের। ভারতীয় হিসেবে বিশ্বসেরা সঙ্গীতের মঞ্চে একমাত্র গ্র্যামিটি পেলেন তবলাবাদক সন্দীপ দাস। চিনা-আমেরিকান বেহালাবাদক ইয়ো-ইয়ো মা’র ‘সিং মি হোম’ অ্যালবামে যৌথ ভাবে কাজ করে এই পুরস্কার পেলেন সন্দীপ। পণ্ডিত রবি শঙ্করের পর গ্র্যামির মঞ্চে বাঙালিদের উপস্থিতি ছিল উজ্জ্বল। কিন্তু তাঁর প্রয়াণের পর সে অর্থে বঙ্গজদের ঘরে গ্র্যামি আসেনি। ২০১৩-র পর আরও একবার গ্র্যামি জিতে বাঙালি তথা ভারতীয়দের নাম স্বর্ণাক্ষরে লিখলেন সন্দীপ।

পুরস্কার পাওয়ার পর ইয়ো-ইয়ো মা এবং তাঁর ব্যান্ডের সঙ্গে তবলাবাদক সন্দীপ দাস। ছবি: এএফপি।

ওয়ার্ল্ড মিউজিক ক্যাটগরিতে এল এই পুরস্কার। এই একই ক্যাটাগোরিতে মনোনীত হয়েছিল অনুষ্কা শঙ্করের ‘ল্যান্ড অফ গোল্ড’ও। কিন্তু বিচারকদের মন জয় করে সেরার তকমা ছিনিয়ে নেয় ‘সিং মি হোম’ই। ঘরে ফেরার বিভিন্ন রূপ সঙ্গীতের মাধ্যমে এই অ্যালবামে তুলে ধরা হয়েছে। যেখানে সন্দীপ ছাড়াও আছে সারা বিশ্বের বহু জাঁদরেল সঙ্গীতশিল্পীদের সুর। পুরস্কার পেয়ে খুশি সন্দীপ বলেন, “এমন ঘটনা ঘটলে তা আমাদের ভীষণ ভাবে প্রভাবিত করে। কারণ প্রত্যেকেই বিভিন্ন জায়গা থেকে এসে মিলিত হয়েছে। এ ভাবেই আমরা সঙ্গীত তৈরি করতে থাকব আর ভালবাসা ছড়িয়ে দিতে থাকব।”

গ্র্যামির পুরস্কারপ্রাপ্ত ‘সিং মি হোম’ অ্যালবামটি শুনুন

এখনও পর্যন্ত তিন বার গ্র্যামির মঞ্চে মনোনীত হয়েছেন সন্দীপ দাস। এই প্রথম বার তিনি এই পুরস্কার জিতলেন। সন্দীপ দাস এই পুরস্কার জিতে নেওয়ার পর উচ্ছ্বাস ছড়িয়েছে। টুইটারে তাঁকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ভারতীয় শিল্পীরা।

দেখুন তবলার তালে দর্শক মাতাচ্ছেন সন্দীপ দাস

আরও পড়ুন: গ্র্যামি পুরস্কার দু’টুকরো করে ‘প্রতিদ্বন্দ্বী’কে স্বীকৃতি আডেলের