বড়সড় ভূমিধসে থমকে গেল চার ধাম যাত্রা। আটকে পড়লেন প্রায় ১১ হাজার পর্যটক। শুক্রবার বিকালে উত্তরাখণ্ডের বিষ্ণুপ্রয়াগের কাছে হাতি পর্বতে ধস নামে। যোশীমঠ থেকে নয় কিলোমিটার দূরে বদ্রীনাথ যাওয়ার রাস্তায় বিশালাকার পাথর উপর থেকে নীচে গড়িয়ে পড়ায় সেই রাস্তা সম্পূর্ণ ভাবে বন্ধ হয়ে গিয়েছে।

ধসের কারণে আপাতত বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে চার ধাম যাত্রা। স্থানীয় প্রশাসন সূত্রে খবর, ধস সরিয়ে রাস্তা পরিষ্কার করতে অন্তত দু’দিন সময় লাগবে। আটকে পড়া সমস্ত পর্যটককে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা চালানো হচ্ছে। উত্তরাখণ্ড বিপর্যয় মোকবিলা দফতরের এগজিকিউটিভ ডিরেক্টর পীযূষ রৌতেলা জানান, খাদ্য-পানীয়ের মতো অত্যাবশ্যকীয় সামগ্রীগুলি ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে। আশা করা হচ্ছে, শনিবারের মধ্যে রাস্তা পরিষ্কার করা সম্ভব হবে।

আরও পড়ুন: বিশ্বের সবচেয়ে ভয়াবহ ১০ প্রাকৃতিক দুর্যোগ

দ্রুত গতিতে চলছে উদ্ধারকাজ। ছবি: পিটিআই

মে মাসের প্রথম থেকেই বদ্রীনাথ, কেদারনাথ, গঙ্গোত্রী এবং যমুনোত্রী— এই চারটি তীর্থস্থান নিয়ে শুরু হয়েছে চার ধাম যাত্রা। জুনের শেষ পর্যন্ত চলবে এই যাত্রা।

চামোলি জেলার পুলিশ সুপার তৃপ্তি ভট্ট জানান, ঘটনাস্থলের দু’দিকে প্রায় ১১ হাজার তীর্থযাত্রী আটকে রয়েছেন। তাঁদের মধ্যে রয়েছে বহু মহিলা ও শিশুও। তবে এই বিপর্যয়ে এখনও পর্যন্ত  প্রাণহানির কোনও খবর পাওয়া যায়নি বলেও জানান তৃপ্তি।।