কয়েক দিন থেকেই চোখটা লাল হয়ে ফুলে যাচ্ছিল। সঙ্গে অসহ্য যন্ত্রণা। ছিল চুলকানির সমস্যাও। ঠিক কী কারণে এমনটা হচ্ছে, বুঝতে পারছিলেন না বছর ছাপ্পান্নর ললিতা। প্রথমে ভেবেছিলেন, অ্যালার্জি জাতীয় কিছু হবে হয়তো! কিন্তু, ক্রমশ সমস্যা বাড়তে থাকে। শেষমেশ হাসপাতালে যান ওই মহিলা। সেখানে গিয়ে চিকিৎসকদের কাছে যা শোনেন, তাতে ভিরমি খাওয়ার জোগাড় হয় কেরলের ওই বাসিন্দার! তাঁর চোখের মধ্যে নাকি রয়েছে আস্ত একটি কৃমি! আর যত সমস্যা, সেই কারণেই।

সম্প্রতি চোখের ওই সমস্যা নিয়ে এর্নাকুলাম জেনারেল হাসপাতালে গিয়েছিলেন ললিতা। প্রাথমিক পরীক্ষার পর চিকিৎসকরা জানান, তাঁর চোখের মধ্যে কোনও ভাবে একটি কৃমি ঢুকে গিয়েছে। অস্ত্রোপচার ছাড়া ওই পরজীবীটিকে বের করা সম্ভব নয়। শুনে প্রথমে খুব অবাক হয়েছিলেন তিনি। চোখের মধ্যে কৃমি! অস্ত্রোপচারের পর ওই ৭০ মিলিমিটার লম্বা ওই পরজীবীটিকে দেখে আরও আশ্চর্য হন ললিতা।

আরও পড়ুন: কানের ভিতর থেকে তরতরিয়ে হেঁটে বেরিয়ে আসছে মাকড়শা...দেখুন ভিডিও

দেখুন ভিডিও

অস্ত্রোপচারের জন্য প্রথমে ‘লোকাল অ্যানাসথেশিয়া’ করা হয় ওই মহিলার চোখ। এর পর ১০ মিনিটের একটি ছোট্ট অপারেশন। তাতেই চোখের ভিতর থেকে বেরিয়ে আসে প্রায় ৭০ মিলিমিটার লম্বা একটি কৃমি। চিকিৎসকরা জানান, ওই পরজীবীটি ‘ডিরোফিলারিয়া’ প্রজাতির। এই কৃমির কারণে মানব দেহে ‘গোদ’ হয়। তবে, চোখের ক্ষেত্রে এই রোগে মূলত সেখানে জল জমে গুটির মতো তৈরি হয়।

তবে, কী ভাবে ওই পরজীবীটি ললিতার চোখের ভিতর ঢুকেছিল, সে ব্যাপারে কিচু জানা যায়নি। পুরো অস্ত্রোপচারটির একটি ভিডিও করা হয়। ভিডিওটি আপলোডও করা হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। এখনও পর্যন্ত কয়েক হাজার মানুষ দেখেছেন ভিডিওটি।