ইউরোপ (উয়েফা)

গতবারের চ্যাম্পিয়ন জার্মানি ১০টি ম্যাচের ১০টিতেই জিতে রাশিয়ার যোগ্যতা অর্জন করেছে। উয়েফা বিভাগে সবচেয়ে বড় চমক আইসল্যান্ড। ইউরোর পরে এ বার ক্ষুদ্রতম দেশ হিসেবে বিশ্বকাপেও খেলতে নামছে তারা। গ্রিজম্যানের দাপটে বেলারুসকে ২-১ হারিয়ে রাশিয়া যাচ্ছে ফ্রান্স। যোগ্যতা পর্বে প্রথম ৯টি ম্যাচ জিতেও পর্তুগালের কাছে শেষ ম্যাচে হেরে গেল সুইৎজারল্যান্ড। দুর্ভাগ্য ফেডেরারের দেশের, তাদের খেলতে হবে প্লে-অফে। রোনাল্ডোর পর্তুগাল রুদ্ধশ্বাস শেষ ম্যাচে সুইসদের ২-০ হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে রাশিয়া যাচ্ছে। 

•নিশ্চিত: রাশিয়া, বেলজিয়াম, জার্মানি, ইংল্যান্ড, স্পেন, পোল্যান্ড, সার্বিয়া, আইসল্যান্ড, ফ্রান্স, পর্তুগাল।

•প্লে-অফে: সুইৎজারল্যান্ড, ইতালি, ক্রোয়েশিয়া, ডেনমার্ক, উত্তর আয়ার্ল্যান্ড, সুইডেন, রিপাবলিক অব আয়ার্ল্যান্ড, গ্রিস।

•(প্লে-অফ ড্র হবে ১৭ অক্টোবর। দু’লেগের ম্যাচ হয়। প্রথম লেগের খেলা হবে ৯-১১ নভেম্বর। দ্বিতীয় লেগ ১২-১৪ নভেম্বর। প্লে-অফ থেকে বিশ্বকাপে যাবে ৪টি দল)।

রাশিয়ায় দেখা যাবে না রবেন (বাঁ দিকে) ও বেলকে। 

দেখা যাবে না: তাঁর জোড়া গোলে জিতল নেদারল্যান্ডস। তবুও রাশিয়া বিশ্বকাপে যাওয়া হচ্ছে না। ডাচ ফুটবলের অক্লান্ত সৈনিক আরয়েন রবেন দেশের জার্সি থেকে অবসরই নিয়ে ফেললেন। তেমনই পারল না ওয়েলস। রাশিয়ায় দেখা যাবে না গ্যারেথ বেলকে।

দক্ষিণ আমেরিকা (কনমেবল)

প্রথম দল হিসেবে যোগ্যতা অর্জন করেছিল ব্রাজিল। প্রবল উদ্বেগ কাটিয়ে লিও মেসির জাদুতে তিন নম্বর স্থানে থেকে রাশিয়া যাচ্ছে আর্জেন্তিনা। লুইস সুয়ারেজের উরুগুয়েও যাচ্ছে বলিভিয়াকে হারানোর পর। হামেজ রদরিগেজের কলম্বিয়া যাচ্ছে। পঞ্চম স্থানে শেষ পেরু খেলবে প্লে-অফে।

দেখা যাবে না: চিলে পেল না রাশিয়ার টিকিট। তাই দেখা যাবে না আলেক্সিস স্যাঞ্চেজ বা আর্তুরো ভিদালের মতো তারকাকে।

কনকাকাফ

মেক্সিকো অপ্রতিরোধ্য ভঙ্গিতে যোগ্যতা অর্জন করে গিয়েছে। হন্ডুরাসকে শেষ মুহূর্তে পেনাল্টি থেকে করা গোলে হারিয়ে নাটকীয় ভাবে পৌঁছে গেল কোস্টা রিকাও। চমক যদিও পানামা। এই প্রথম বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করায় পানামার রাষ্ট্রপতি সরকারি ছুটিও ঘোষণা করেছেন। প্লে-অফে খেলার সুযোগ পাচ্ছে হন্ডুরাস।

দেখা যাবে না: ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোব্যাগোর কাছে ১-২ হেরে রাশিয়া যাওয়া হচ্ছে না মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের।

আরও পড়ুন: সুইজারল্যান্ডকে হারিয়ে বিশ্বকাপের টিকিট পাকা করল পর্তুগাল

এশিয়া

প্রথম দল হিসেবে যোগ্যতা অর্জন করে ইরান। রাশিয়ার টিকিট নিশ্চিত জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া, সৌদি আরবের। প্লে-অফে অস্ট্রেলিয়া। হন্ডুরাসের বিরুদ্ধে খেলবে অস্ট্রেলিয়া। ইন্টার কন্টিনেন্টালের অন্য প্লে-অফে নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি পেরু।

আফ্রিকা

কঠিন গ্রুপ থেকে যোগ্যতা অর্জন করেছে নাইজিরিয়া। কিন্তু শিরোনামে মিশর। ১৯৯০-এর পর এই প্রথম তারা বিশ্বকাপে খেলবে। যদিও দীর্ঘ এই ২৭ বছরের মধ্যে চারবার আফ্রিকা কাপ অব নেশন্‌স জিতেছে মিশর। দু’টি দল চলে গিয়েছে, এখনও তিনটি জায়গা বাকি।  রাশিয়ার রাস্তা থেকে হঠে গিয়েছে ক্যামেরুন।

ত্রয়ীর লড়াই জমবে রাশিয়ায়

তাঁরা তিনজন আধুনিক বিশ্ব ফুটবলের তিন মহাতারকা। তিন শাসক। ব্রাজিলের নেমার, আর্জেন্তিনার মেসি, পর্তুগালের ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। একমাত্র নেমার রাশিয়ার রাস্তায় নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিলেন আগেই। আতঙ্ক ছিল মেসি ও রোনাল্ডোকে নিয়ে। সেই উদ্বেগ কাটিয়ে একই দিনে বিশ্বকাপের যোগ্যতা অর্জন করে গেল মেসির আর্জেন্তিনা এবং রোনাল্ডোর পর্তুগাল। রাশিয়ায় তাই জমজমাট ত্রয়ীর দ্বৈরথ।