Patanjali

কেশ কান্তির সঙ্গে এই পুজোয় চুল হোক উজ্জ্বল, স্বাস্থ্যবান ও গোড়া থেকে মজবুত

রোজকার এই চুলের বৃদ্ধি এবং চুল পড়ে যাওয়া প্রাকৃতিক প্রক্রিয়া হলেও, যখন চুল পড়ার হার চুলের বৃদ্ধির হারকে ছাড়িয়ে যায়, তখন এটি একটি গুরুতর সমস্যা হয়ে দাঁড়ায়।

পতঞ্জলি কেশ কান্তি হেয়ার ওয়েল

পতঞ্জলি কেশ কান্তি হেয়ার ওয়েল

এবিপি ডিজিটাল ব্র্যান্ড স্টুডিয়ো
শেষ আপডেট: ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০৫:২৩
Share: Save:

রোজকার জীবনযাত্রার চাপ, অনিয়‌ম, শরীরচর্চার অভাব অথবা দূষণ — ইত্যাদি নানা কারণে আধুনিক জীবনযাত্রায় চুলের সমস্যা অধিকাংশ মানুষের ক্ষেত্রেই প্রকট হয়ে ওঠে। চুল পড়া, চুলে উঠে যাওয়া, খুশকি, রুক্ষতা ও শুষ্কতা কিংবা পাতলা হয়ে যাওয়া — চুলের এই সমস্যাগুলি এখন আর শুধু বড়দের মধ্যেই সীমাবদ্ধ নেই। কিশোর বয়স থেকেই শুরু হয় এমন সমস্যা।

শুধু মাত্র ভারত নয়, এই সমস্যা আসলে বিশ্বজনীন। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে এই সমস্যা বাড়ছে বৈ কমছে না। পরিসংখ্যান বলছে, এক জন সাধারণ মানুষ সারা দিনে অন্তত ৫০ থেকে ১০০ স্ট্র্যান্ডস চুল ফেলেন প্রতিদিন। রোজকার এই চুলের বৃদ্ধি এবং চুল পড়ে যাওয়া প্রাকৃতিক প্রক্রিয়া হলেও, যখন চুল পড়ার হার চুলের বৃদ্ধির হারকে ছাড়িয়ে যায়, তখন এটি একটি গুরুতর সমস্যা হয়ে দাঁড়ায়। অনুপযুক্ত পুষ্টি, বার্ধক্য, মানসিক চাপ এই ঘটনার সবচেয়ে বিশিষ্ট কারণ।

কিন্তু, চুলের এই ক্ষতি আসলে কী তা নিয়ে কখনও ভেবেছেন?

এটি চুলের স্ট্র্যান্ডের (কিউটিকল) বাইরের স্তরগুলির ক্ষতি করে। যার ফলে চুল হয়ে পড়ে শুষ্ক ও নিস্তেজ। চুল ফ্রিজ হয়ে যায়। চুলের মোলায়ম ভাব হারিয়ে যায়। চুলে থাকা প্রাকৃতিক কন্ডিশনারের ক্ষতি হয়। সর্বোপরি চুল ভেঙে যায়। রাসায়নিকের অতিরিক্ত ব্যবহার, স্টাইলিং, ইউভি রশ্মি, চুলে অতিরিক্ত তাপ প্রয়োগ, দূষণ ইত্যাদি চুলের ক্ষতির প্রধান কারণ।

কয়েক দশক ধরে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের বহু মানুষ চুলের ক্ষতি নিয়ে অত্যন্ত চিন্তিত। সেই সমস্যা সমাধানেই এখন পতঞ্জলি গ্রুপ নিয়ে এসেছে তাদের অনন্য আয়ুর্বেদিক ওষুধ, যার মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন প্রমাণিত আয়ুর্বেদিক ভেষজ সহ একাধিক জৈব-সক্রিয় যৌগ।

সংস্থার বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, চুলের স্বাস্থ্য ধরে রাখতে বা স্বাস্থ্য ফিরিয়ে দেওয়ার উদ্দেশ্যেই এই ওষুধটি তৈরি করা হয়েছে। পুরুষ হোক বা মহিলা, আট থেকে আশি, সমস্ত বয়সের গ্রাহকরাই এটি ব্যবহার করতে পারেন।

কেশ কান্তি অ্যাডভান্স হারবাল হেয়ার এক্সপার্ট অয়েল

এই তেলটি বিভিন্ন আধুনিক ও ঐতিহ্যবাহী আয়ুর্বেদিক পদ্ধতির মাধ্যমে তৈরি করা হয়। এবং এর মধ্যে থাকা বিভিন্ন সক্রিয় উপাদানগুলি চুলের প্রাকৃতিক স্বাস্থ্য ধরে রাখে ও চুলকে করে তোলে গোড়া থেকে মজবুত।

কোন কোন উপাদানে সমৃদ্ধ এই তেলটি?

  • মূল উপাদান: এর মধ্যে রয়েছে ৩০টি প্রমাণিত আয়ুর্বেদিক ভেষজ যা চুলের স্বাস্থ্য বজায় রাখে
  • গুণমান পরীক্ষিত কাঁচামাল: সামঞ্জস্যপূর্ণ কার্যকারিতা বজায় রাখে
  • বায়ো-অ্যাকটিভের নিষ্কাশন: তেলের মধ্যে থাকা চুলের স্বাস্থ্যের জন্য উপকারি সক্রিয় যৌগগুলির বিশুদ্ধতা এবং কার্যকারিতা বৃদ্ধি করে।
  • সংস্থার বিশেষজ্ঞদের দাবি, মাত্র এক সপ্তাহের মধ্যেই এই তেল ক্ষতিগ্রস্থ চুল মেরামত করে এবং মাথার ত্বককে খুশকি মুক্ত করে।
  • সঙ্গে চুল পড়া রোধ করে এবং ১-২ মাসে নতুন চুল গজায়।

বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন নির্দেশাবলী অনুসরণ করে এই তেল ব্যবহার করলে মাত্র ৭-১০ দিনের মধ্যেই পার্থক্য চোখ পড়বে। সঙ্গে বেশ কিছু যোগব্যয়ামও করতে হবে যেগুলি চুলকে ভাল রাখতে সাহায্য করে। যেমন শীর্ষাসন (চুল পড়া এবং চুল পেকে যাওয়া রোধ করে), সর্বাঙ্গাসন (চুলের বৃদ্ধি বাড়ায়), শসাঙ্গাসন (চুলের শক্তি বাড়ায়) ইত্যাদি।

তা হলে আর দেরি কেন? আজই বাড়িতে নিয়ে আসুন পতঞ্জলি কেশ কান্তি অ্যাডভান্স হারবাল হেয়ার এক্সপার্ট অয়েল এবং চুলকে করে তুলুন উজ্জ্বল ও গোড়া থেকে মজবুত।

কেশ কান্তি অ্যাডভান্স হারবাল হেয়ার এক্সপার্ট অয়েল কিনুন পাশের লিঙ্কে ক্লিক করে: https://bit.ly/KeshKantiAdvance

এই প্রতিবেদনটি ‘পতঞ্জলির’ সঙ্গে আনন্দবাজার ব্র্যান্ড স্টুডিয়ো দ্বারা যৌথ উদ্যোগে প্রকাশিত।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.