Advertisement
Festive lights

এই পুজোতে ঘর সাজান রকমারি আলো দিয়ে

যাঁরা ঘর সাজাতে ভালবাসেন, তাঁরা বেছে নিতে পারেন রকমারি আলো। বাড়ির অন্দর থেকে বাইরে, সবটাই সাজিয়ে তুলতে পারেন চোখধাঁধানো কায়দায়।

বসার ঘরে শৌখিন আলো

বসার ঘরে শৌখিন আলো

আনন্দ উৎসব ডেস্ক
শেষ আপডেট: ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১১:৪৯
Share: Save:

পুজোর মরসুমে আলোর রোশনাই ছাড়া যেন অসম্পূর্ণই থেকে অন্দর মহলের যে কোনও সাজ। যতই অন্য উপকরণ দিয়ে ঘর সাজানো হোক না কেন, হরেক রকম আলো ব্যবহার না করলে সাজটাই মাটি! উৎসবের দিনগুলোয় অতিথি সমাগম লেগেই থাকে। যাঁরা ঘর সাজাতে ভালবাসেন, তাঁরা বেছে নিতে পারেন রকমারি আলো। বাড়ির অন্দর থেকে বাইরে, সবটাই সাজিয়ে তুলতে পারেন চোখধাঁধানো কায়দায়। দেখে নিন কী কী ধরনের আলো হয়ে উঠতে পারে আপনার সাধের বাড়ি সাজানোর উপকরণ।

প্যানেল লাইটে নরম আলো-

জোরালো আলোর দিকে না ঝুঁকে টিউবলাইটের পরিবর্তে ইদানীং অনেকেই বেছে নিচ্ছেন নরম আলোর প্যানেল লাইট। বসার ঘরের পরিবেশ মনোরম করে তুলতে খুব সুন্দর ভাবেই এগুলি ব্যবহার করতে পারেন। খুব জোরালো না হওয়ায় এই আলো জমাটি আড্ডার আদর্শ পরিবেশ তৈরি করতে পারে নিমেষে।

সিঁড়িতে এলইডি ও প্রদীপ-

বাজার জুড়ে এখন এলইডি লাইটের রমরমা। নানা রঙে এই ধরনের লাইটে মনের মতো করে সাজিয়ে তুলতে পারেন আপনার পুজোর ঘর, বারান্দা। সিঁড়ি বেয়ে উপর তলায় উঠুন লাল বা হলুদ এলইডি সাজানো পথে।

চোখ টানুন স্পটলাইটে-

বসার ঘর কিম্বা পুজোর ঘর সাজাতে আদর্শ স্পটলাইট। এই ধরনের আলোয় ঘর অনেক বেশি উজ্জ্বল ও বড় দেখায়। আপনার অন্দরসজ্জার খুঁটিনাটি আরও বেশি করে ফুটে উঠুক অতিথিদের চোখে।

ঝাড়বাতির ঐতিহ্য-

বাজেট একটু বেশি? সাবেক অন্দরসাজে চোখ ধাঁধিয়ে দিতে বসার ঘরে লাগান শৌখিন ঝাড়বাতি। রাজকীয় থিমে আপনার চেনা ঘরই হয়ে উঠবে একেবারে অন্য রকম।

রাজকীয় আলোর সাজ

রাজকীয় আলোর সাজ

অ্যাক্সেন্ট লাইটে নজরকাড়া-

শোওয়ার ঘর কিম্বা বসার ঘরে কোনও বিশেষ জায়গায়, যেমন সোফাসেটের পাশে কিম্বা ড্রেসিং টেবিলের সামনে অ্যাক্সেন্ট লাইটের ব্যবহার এখন খুবই জনপ্রিয়। এর সাহায্যে সেই নির্দিষ্ট জায়গাটিতে নজর পড়ে। অন্দরসাজও হয়ে ওঠে আরও আকর্ষণীয়।

এই প্রতিবেদনটি 'আনন্দ উৎসব' ফিচারের একটি অংশ।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE