সারা বিশ্বের সঙ্গে ভারতেও ক্রমশই বেড়ে চলেছে ডায়াবিটিসের প্রকোপ। ওষুধের পাশাপাশি ডায়াবিটিসের বিশেষ ডায়েট, অল্টারনেটিভ মেডিসিন, শরীরচর্চার উপরেও জোর দিচ্ছেন সারা বিশ্বের গবেষকরাই। এ বার রুটগার্স নিউ জার্সি মেডিক্যাল স্কুলের গবেষকরা জানালেন, হাতের স্মার্টফোনের সাহায্যেই নাকি নিয়ন্ত্রণে রাখা যাবে ডায়াবেটিস।

আরও পড়ুন: ইচ্ছেমতো ডায়েটই সমস্যা বাড়ায় ডায়াবিটিসে

রুটগার্স নিউ জার্সি মেডিক্যাল স্কুলের গবেষক লুই উলোয়া জানান, সে দিন আর দূরে নেই যখন বিশেষ অ্যাপে ক্লিক করেই রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখতে প্যানক্রিয়াসকে নির্দেশ দেওয়া যাবে। লুই বলেন, ‘‘আমাদের শরীরটা একটা বড় বাড়িতে অনেকগুলো ঘরের মতো। কোনও অন্ধকার ঘরে ঢুকলে যেমন আলো জ্বালানোর জন্য বিদ্যুতের প্রয়োজন হয়, তেমনই আমাদের শরীরও কী ভাবে কাজ করবে তা নিয়ন্ত্রণ করার জন্য ইলেকট্রিক্যাল নেটওয়ার্কের প্রয়োজন হয়। এই গবেষণায় আমাদের স্নায়ু উদ্দীপ্ত করার বিভিন্ন পদ্ধতি নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। যেখানে উঠে এসেছে প্রাচীন আকুপাংচার থেকে আধুনিক ইলেক্ট্রোআকুপাংচার , নিউরোমডিউলেশনের মতো বিষয়গুলো। এই সব আধুনিক পদ্ধতির সাহায্যে বিভিন্ন ইলেকট্রিক্যাল ডিভাইসের মাধ্যমে ক্রনিক ব্যথা, পেলভিক ডিজঅর্ডার, পার্কিনসন, বাত, সেপসিস, কোলাইটিস, ডায়াবিটিস, প্যানক্রিয়াটাইটিস, প্যারালিসিস, ওবেসিটির মতো অসুখের চিকিত্সা করা হয়।
ঠিক একই পদ্ধতিতে কাজ করে পেসমেকারও। এ ক্ষেত্রেও হাতে থাকা স্মার্টফোন ইলেকট্রনিক ডিভাইসের সাহায্যে একই পদ্ধতিতে ডায়াবিটিস নিয়ন্ত্রণের পরিকল্পনা করছেন গবেষকরা।

আরও পড়ুন: জানেন কি মাউথওয়াশ বাড়ায় ডায়াবিটিসের ঝুঁকি? বাঁচবেন কী ভাবে?

এই মুহূর্তে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ১ কোটি ৫ লক্ষ মানুষ অস্টিওআর্থারাইটিস, মাইগ্রেন, গাঁটে ব্যথা, স্ট্রোক, পোস্ট-ট্রমাটিক স্ট্রেস ডিজঅর্ডার, ড্রাগ অ্যাডিকশনের মোকাবিলায় আধুনিক ইলেকট্রোআকুপাংচারের সাহায্য নিচ্ছেন। সেই পদ্ধতিতেই এ বার অত্যাধুনিক উপায়ে অ্যাপের মাধ্যমে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণের পথে গবেষকরা।

ট্রেন্ডস ইন মলিকিউলার মেডিসিন জার্নালে এই গবেষণার ফল প্রকাশিত হয়েছে।