চেন্নাইয়ান এফসি ৩ : এটিকে ২

(জেজে ৬৫, ৯১, কালদেরন ৮৪)   ( জেকুইনিয়া ৭৭, কুকি ৮৯)

দুই চ্যাম্পিয়নের খেলা যত সময় গড়াল, খুলল যেন! জয়ের ধারা ধরে রাখল চেন্নাইয়ান এফসি, টানা তৃতীয় ম্যাচ জিতে। নয় পয়েন্ট নিয়ে উঠে এল চতুর্থ হিরো ইন্ডিয়ান সুপার লিগে সবার ওপরে। গতবারের চ্যাম্পিয়নদের দুর্দশা অবশ্য কাটল না। গোল এলেও দ্বিতীয় হারের পর দুবারের চ্যাম্পিয়ন এটিকে থেকেই গেল তালিকায় সবার শেষে।

রবি কিন খেলতে পারবেন না, বলেছিলেন শেরিংহ্যাম। কিন্তু, দলের যা অবস্থা, ভরসা রাখতে না পেরে ৬১ মিনিটে মাঠে নামিয়েছিলেন আন্তর্জাতিক স্তরের বিখ্যাত ফুটবলারকে। ৮৫ মিনিটে চেন্নাই বক্সে চেন্নাইয়ানের অধিনায়ক সেরেনোর বিরুদ্ধে পেনাল্টির আবেদন করেছিলেন কিন, যাতে কান দেননি রেফারি। দ্বিতীয়বার সমতা ফেরানোর গোলের পাস বাড়িয়েওছিলেন কুকির জন্য।

চেন্নাইয়ানের জয়সূচক তৃতীয় গোলের জন্য অনেকটাই দায়ী গোলরক্ষক দেবজিৎ মজুমদার। স্পেনীয় ইনিগো কালদেরনের মাটিঘেঁষা ক্রস দেবজিৎ শুয়ে পড়ে কোনও রকমে হাত লাগিয়ে সোজা অপেক্ষারত জেজে লালপেখলুয়ার পায়ে পাঠিয়ে দিয়েছিলেন, যাঁর বাঁ পা গোলে বল জড়াতে ভুল করেনি। গত তিন ম্যাচে গোল পাননি জেজে, আজ এক ম্যাচে পেলেন জোড়া গোল এবং ম্যাচসেরার সম্মান!

আরও পড়ুন: নর্থ-ইস্টের বিরুদ্ধেই ঘুরে দাঁড়াতে হবে: সুনীল ছেত্রী

কিন মাঠে আসার পরপরই পিছিয়ে পড়েছিল এটিকে। ছোট কর্নার রেখেছিলেন চেন্নাইয়ানের মিডিও গেভিলান, কালদেরনের পা থেকে ফিরতি বল পেয়ে এটিকে বক্সে তুলে দিয়েছিলেন। সেরেনোর হেড থেকে বল পোস্টে লেগে পৌঁছে গিয়েছিল প্রায় গোললাইনে ফাঁকায় দাঁড়িয়ে থাকা জেজে-র কাছে। ভারতীয় স্ট্রাইকার কোনও ভুল করেননি জালে বল পাঠাতে। আইএসএল ইতিহাসে মিজোরামের স্ট্রাইকারের গোল সংখ্যাই সবচেয়ে বেশি।

এটিকে অবশ্য ম্যাচে ফিরে এসেছিল ৭৭ মিনিটে সমতা ফিরিয়ে। কুকির কাছ থেকে বল পেয়ে বক্সের ভেতর থেকে ডানপায়ে মাটিঘেঁষা জোরালো শট রেখেছিলেন পর্তুগিজ স্ট্রাইকার। চেন্নাইয়ান গোলরক্ষক করনজিৎ সিংহ ঠিকঠাক দেখতে পেলে হয়ত আটকাতে পারতেন, কিন্তু পারেননি।

৮০ মিনিটে জয়ের গোল পেয়েও যেতে পারতেন এটিকের কুকি। একা পেয়ে গিয়েছিলেন সামনে করণজিৎকে। কিন্তু তাঁর শট করণজিতের বাড়ানো বাঁ হাতে লেগে ফিরে আসে। গোলমুখ খোলা পেয়েও গোল না-পাওয়াটাই এবারের এটিকের সবচেয়ে বড় সমস্যা দেখা দিচ্ছে।

আরও পড়ুন: পুলিশ এ বার বন্ধ করে দিল এটিকে ম্যাচও

উল্টে চেন্নাইয়ান এগিয়ে যায় আবার, ৮৪ মিনিটে। স্পেনীয় ফুটবলার কালদেরনের শট এটিকের ইংরেজ ডিফেন্ডার টম থর্পের গায়ে লেগে দিক পরিবর্তন করে জালে। দেবজিতের কিছু করারই ছিল না এই গোলে। আর তিনটি গোলেই পা থেকে গেল কালদেরনের।

কিন্তু, এটিকে-রক্ষণ দুমিনিটও ধরে রাখতে পারেনি সমতা। জয়ের ধারা ধরে রাখল চেন্নাইয়ান, সঙ্গে এই প্রথম ঘরের ঘরের মাঠে এটিকে-কে। এবারের প্রতিযোগিতায় প্রথম ম্যাচে এফসি গোয়ার কাছে হেরে যাওয়ার পর টানা তিন জয় জন গ্রেগরির দলের। মুম্বই সিটি এফসি-র বিরুদ্ধে এখন বাড়তি আত্মবিশ্বাস নিয়ে খেলতে যেতে পারবে ২০১৫-র চ্যাম্পিয়নরা।