৯ বৈশাখ ১৪২১, বুধবার, ২৩ এপ্রিল ২০১৪ | কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ weather forecast সর্বোচ্চ : ৪০.০°C     সর্বনিম্ন : ২৭.০ °C

ব্যোম শঙ্কর ভজ গৌরাঙ্গ

হ্যাঁ, এই সময়কার বাণিজ্যিক বাংলা ছবির ড্রিম কাস্টিংটা চূড়ান্ত হয়ে গিয়েছে সোমবার সকালে। এক দিকে রাজ্যসভার এমপি গৌরাঙ্গ চক্রবর্তী। অন্য দিকে ঘাটালের তৃণমূলের লোকসভার প্রার্থী দীপক অধিকারী। এক দিকে পাগলু। অন্য দিকে ফাটাকেষ্ট। এক দিকে মিঠুন চক্রবর্তী। অন্য দিকে দেব। আর এই অগস্ট মাস থেকে তাঁরা বড় পর্দায়। ছবির টাইটেল এখনও ঠিক না হলেও এটা নিঃসন্দেহে বলা যায় সাম্প্রতিক কালে এত হাই ভোল্টেজ কাস্টিং বাংলা ছবিতে অবশ্যই দেখা যায়নি।


বাঙালির মৃত্যু হয়েছে... বাঙালি অনুকরণ করে মরেছে

হাসির গল্প লিখবেন ভেবে লেখেননি। সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায় লিখেছেন জীবনের গন্ধ-মাখা লেখা। গরমের এক দুপুরে তাঁর মুখোমুখি স্রবন্তী বন্দ্যোপাধ্যায়


বলিউডে সত্যিকারের প্রেম বলে কিছু নেই... সবই প্রয়োজনের

এত কিছু বলা হয়, আপনার আর আপনার হিরোইনদের নিয়ে। কোনও দিন কোনও হিরোইনের প্রেমে পড়েননি? এটা আপনাকে বলব না। কারণ বললে, কাছের মানুষদের দুঃখ দেওয়া হতে পারে। তবে একটা কথা বলা দরকার। এটুকু জানবেন যে, হয়তো ইন্ডাস্ট্রির সব অ্যাফেয়ারগুলোই নিড বেসড হয়। প্রয়োজন ভিত্তিক সম্পর্ক। দুই ফ্লপ অভিনেতাকে কখনও প্রেম করতে দেখেছেন? বা একজন সফল অভিনেতা আর এক ফ্লপ অভিনেত্রীর সঙ্গে সম্পর্ক টিকিয়ে রাখছে, দেখেছেন কি?


চুপি চুপি সাত পাক

কিছু দিন আগে রানি মুখোপাধ্যায়ের বাবাকে হঠাত্‌ নার্সিং হোমে ভর্তি করা হয়েছিল। তড়িঘড়ি অস্ত্রোপচার করে পেসমেকার বসানো হয়েছিল। আর সেই অপারেশনের পর থেকে তিনি না কি একটাই কথা বারবার বলে গিয়েছেন। চেয়েছেন মেয়ের বিয়েটা তাড়াতাড়ি হয়ে যাক। রানির বিয়ে নিয়ে জল্পনা অনেক দিন আগে থেকেই শুরু হয়েছিল।


মিষ্টিমুখ

মিষ্টি দই। রসগোল্লা। গোলাপ জাম। এ সব আবার অভিনেতারা খান নাকি? ‘কাঞ্চী’ ছবির নবাগতা নায়িকা মিষ্টি-র কোনও আপত্তি নেই। “আমি সব খাই,” বলে এক গাল হাসি। তার পর মিষ্টি দইয়ের ভাঁড় থেকে এক চামচ তুলে নিয়ে খাওয়ালেন সহ অভিনেতা কার্তিক আরিয়ানকে। পরের স্কুপটা নিজের জন্য।


গুরুদক্ষিণা

তাহলে ‘গুরুদক্ষিণা’টা শেষ পর্যন্ত কাকে দিচ্ছেন? মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে? নাকি তরুণ মজুমদারকে? প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে, তাপস পাল একটু থমকালেন!


ঘুরব আমি একা একা

একটা দুর্ঘটনা। বিদেশ ঘোরার অদম্য ইচ্ছে। আর সেই ইচ্ছেডানায় ভর করেই যাত্রা সুদূর প্যারিসে। প্যারিস তাঁকে শেখাল একা স্বনির্ভর হয়ে বাঁচতে শেখা।




বিশেষ বিভাগ