Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৬ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

লক্ষ্মীপুজোয় কী পরবেন? টিপস দিলেন দুই ডিজাইনার

পরমা দাশগুপ্ত
২১ অক্টোবর ২০১৮ ১৪:২৯
ডিজাইনার অভিষেক দত্তের শাড়িতে মেতে উঠুন লক্ষ্মীপুজোয়। ছবি: সংগৃহীত।

ডিজাইনার অভিষেক দত্তের শাড়িতে মেতে উঠুন লক্ষ্মীপুজোয়। ছবি: সংগৃহীত।

হাসতে হাসতে এ কালের শাশুড়িমা বলছেন, “'আমার বৌমা প্যাঁচার মতো রাত জাগে বটে। তবে লক্ষ্মী মেয়ে কিন্তু। ঘরে-বাইরে সমানতালে সব আগলেও রাখে, সামলেও। দিব্যি গুছিয়ে লক্ষ্মীপুজোও করে।”

পাশে বসা বৌমার মুখেও মিটিমিটি হাসি।

এ কালের নিউক্লিয়ার পরিবারের বৌমারা কিন্তু সত্যিই সব একা হাতে সামলায়। রাত জেগে প্রেজেন্টেশন বানিয়ে চোখের তলায় কালি। তবু নিজের অফিসের চাপ সামলেই হোমফ্রন্টে তীক্ষ্ণ নজর। ব্রেকফাস্ট রেডি কি না, তিন বছরের ছেলে মোবাইলে মুখ গুঁজে বসে রইল কি না, বরের অফিস ট্যুরের আগে সুটকেস গোছানো – সব! লক্ষ্মীপুজোই বা বাদ যাবে কেন। নিজের বাড়িতে পরিপাটি করে পুজো করা আছে, তারপর বান্ধবীর বাড়ির পুজোয় টুক করে ঘুরে আসাও। সবটাই সামলে নিচ্ছে মনের মতো করে।

Advertisement

আর তাতে সাজতেও তো হবে, নাকি?



অগ্নিমিত্রা পলের ডিজাইন করা শাড়িতে লক্ষ্মীপুজোর সাজ হবে শান্ত, স্নিগ্ধ।

ডিজাইনার অগ্নিমিত্রা পল বলছেন, “লক্ষ্মীপুজোয় শাড়ি ছাড়া সাজ হয় নাকি? সাদা, অফ হোয়াইট, হাল্কা বিস্কিট রঙের শাড়ি হোক খাদি বা সুতির হ্যান্ডলুম। পাড় থাক জমকালো। সঙ্গে একটা উজ্জ্বল রঙের জমকালো ডিজাইনার ব্লাউজ। কাজ করা লাল ভেলভেটের, কমলা রঙের উপরে ফুলকারি ডিজাইন, কিংবা বেগুনি জর্জেটের সুন্দর কাটের ব্লাউজ পরা যায়। চুলে থাক এক সাইডে একটা কেয়ারলেস এলো খোঁপা, তাতে ফুল বা সুন্দর ডিজাইনের একটা কাঁটা গোজা। গয়না হোক মুক্তো বা রুপোর। অক্সিডাইজডও পরতে পারেন।” তাঁর কথায়, “একেবারেই শাড়ি পরতে না পারলে পালাজো আর আনারকলি পরা যায় হাল্কা রঙের। তার উপর সিকুইন বা এমব্রয়ডারির কাজ থাকতে পারে। তবে যাই পরুন, সাজটা হতে হবে শান্ত, স্নিগ্ধ। এটাই আমার কাছে লক্ষ্মীপুজোর সাজ।''

আরও পড়ুন
উৎসবের মরসুমে কী কী সোনার গয়না ট্রেন্ডি জানেন?

ডিজাইনার অভিষেক দত্ত অবশ্য চান, হাল্কা রং নয়, শাড়িতে থাক লাল, কমলা, রানি কালারের মতো লাল ঘেঁষা শেড। তাঁর কথায়, “সুতির শাড়িতে এমব্রয়ডারি থাকতে পারে, তবে খুব ভারী কাজ নয়। সঙ্গে একটা ইন্টারেস্টিং ডিজাইনার ব্লাউজ- লো নেক, ফিতে বাঁধা হোক বা হাইনেক ব্লাউজের পিঠে সুন্দর একটা প্যাঁচার মোটিফ। সেই মোটিফ থাকতে পারে শাড়িতেও। লক্ষ্মীপুজোয় বেশ মানাবে। ধনদেবীর পুজোয় পরুন সোনার বা সেকেলে ডিজাইনের কোনও গয়না।”

আরও পড়ুন
সিঁদুর খেলে মুখের রফাদফা! কী ভাবে জেল্লা ফেরাবেন?

এই দিনটায় ছেলেদের সাজেরও টিপস দিচ্ছেন অভিষেক। বলছেন, “ছেলেরা পাজামা পাঞ্জাবী, কুর্তা চুড়িদার পরুক না। তাতেও থাকতে পারে প্যাঁচার মোটিফ। আংরাখা স্টাইল কুর্তা হতে পারে বা পাঞ্জাবির উপরে নেহরু কোট।''

এ বারের লক্ষ্মীপুজোয় তা হলে আপনিও সাজছেন তো?

আরও পড়ুন

Advertisement