Advertisement
Home Buying Tips

কোন ফ্লোরে ফ্ল্যাট কিনবেন? সুবিধা-অসুবিধার কথা মাথায় রেখে তবেই সিদ্ধান্ত নিন

বহু ক্রেতার মনের মধ্যে একটা দ্বন্দ্ব চলতেই থাকে যে, কোন ফ্লোরে ফ্ল্যাট কেনা উচিত। উত্তরটা আসলে খুবই সহজ।

আনন্দ উৎসব ডেস্ক
শেষ আপডেট: ০২ অক্টোবর ২০২৩ ১৪:২০
Share: Save:

সুউচ্চ বহুতলে বসবাসের স্বপ্ন দেখেন, এমন মানুষের সংখ্যাটা কিন্তু বেশ বড়। যদিও এমন বহু মানুষও রয়েছেন, যাঁরা অ্যাপার্টমেন্ট বিল্ডিংয়ের নীচের তলাতেই থাকতে চান। তবে বহু ক্রেতার মনের মধ্যে একটা দ্বন্দ্ব চলতেই থাকে যে, কোন ফ্লোরে ফ্ল্যাট কেনা উচিত।

উত্তরটা আসলে খুবই সহজ। ফ্ল্যাটের উপরের দিকের ফ্লোর হোক বা নীচের দিকের ফ্লোর, দুই ক্ষেত্রেই বিশেষ কিছু সুবিধা রয়েছে। আবার অসুবিধাও রয়েছে। যেমন, উপরের ফ্লোরগুলির একটি বড় সুবিধা হল, এখানে সরাসরি সব থেকে বেশি আলো- বাতাস চলাচল করতে পারে। আবার অন্য দিকে টপ ফ্লোর কিন্তু অন্যান্য ফ্লোরের তুলনায় অনেক বেশি গরম। যে সব শহরে গ্রীষ্মকালের তাপমাত্রা অত্যন্ত বেশি, সেখানে মানুষ উপরের ফ্লোরে থাকলে বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হন। পাশাপাশি, ওয়াটার প্রুফিং ঠিক মতো করা না থাকলে ছাদে ড্যাম্প ধরা বা ফুটো হওয়ার মতো ঘটনায় সবচেয়ে বেশি সমস্যা হয় উপরের তলায় বসবাসকারী পরিবারেরই। অন্য দিকে, নীচের দিকের ফ্লোরের বাসিন্দাদের এই সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় না। কিন্তু এই ফ্লোরগুলিতে আলো-বাতাসও অপেক্ষাকৃত কম।

অ্যাপার্টমেন্টের নীচের ফ্লোরে থাকার সুবিধা-অসুবিধা

বহু মানুষ গ্রাউন্ড ফ্লোরেই থাকতে চান। কারণ এই ক্ষেত্রে বাড়ির পাশেই খোলা বারান্দা, বাগান ইত্যাদির সুবিধা সহজেই পাওয়া যায়। নীচতলায় গরম কম থাকে। পাশাপাশি, লিফট খারাপ হলে সিঁড়ি বেয়ে অনেকটা ওঠার সমস্যাও এড়ানো যায়। অনেক ক্ষেত্রে একদম নীচের ফ্লোরে অতিরিক্ত কিছু জায়গা পাওয়া যায়, যা সহজেই বাগান করতে বা সাইকেল-বাইক রাখার জায়গা হিসাবে ব্যবহার করা যেতে পারে। একই সঙ্গে ঘরের আসবাব এবং অন্যান্য জিনিসপত্র স্থানান্তরিত করাও সুবিধাজনক।

অন্য দিকে, নীচের ফ্লোরে কিন্তু নিরাপত্তা তুলনামূলক ভাবে কম। সেই সঙ্গে ঝড়, বৃষ্টির সময়েও বেশ অসুবিধা হয় বসবাসকারীদের। তা ছাড়া, মশা, মাছির সমস্যাও নীচের ফ্লোরে বেশি।

উপরের ফ্লোর কেনার সুবিধা-অসুবিধা

উপরের তলায় ফ্ল্যাটগুলির গোপনীয়তা এবং নিরাপত্তা অনেকটাই বেশি। এই তলগুলি বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই বিচ্ছিন্ন থাকে। আলাদা-নিরিবিলি পরিবেশ চাইলে উপরের ফ্লোর আপনার জন্য উপযুক্ত। জানালার বাইরে তাকালেই প্রকৃতির সৌন্দর্য উপভোগ করতে পারবেন।

একদম উপরের ফ্লোরে বসবাসকারী কোনও ব্যক্তি আলোও পেতে পারেন সবচেয়ে বেশি। যা দিনের বেলায় কৃত্রিম আলো ব্যবহারের প্রয়োজনীয়তা কমায়। ফলে আপনার বিদ্যুৎ বিলও কম আসবে। এর পাশাপাশি, ঘরে বাতাস চলাচলও বেশি।

এই কারণেই উপরের ফ্লোরটিকে পেন্টহাউস বলা হয়। এমন সুযোগ সুবিধার জন্য অতিরিক্ত মূল্যও দিতে হয় ক্রেতাকে। পাশাপাশি, উপরের তলায় কিন্তু রক্ষণাবেক্ষণের কাজ করা বেশ কঠিন। নির্মাণসামগ্রী উপরের ফ্লোরে নিয়ে যাওয়া অনেক বেশি কষ্টসাধ্য। তাই শ্রম খরচও বেড়ে যায়। যার প্রভাব পড়ে ফ্ল্যাটের দামে।

তবে, উপরের তলায় বসবাসকারীদেরও বেশ অনেকগুলি অসুবিধার মুখোমুখি হতে হয়। যেমন, ভূমিকম্প বা অগ্নিকাণ্ডের মতো জরুরি পরিস্থিতিতে বসবাসকারীদের উঁচু তলা থেকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া রীতিমতো কঠিন। বিদ্যুৎ চলে গেলে বা লিফটের রক্ষণাবেক্ষণ চললে, বয়স্ক ব্যক্তিদের সিঁড়ি বেয়ে উঠতে অসুবিধা হয়।

তবে আপনি সর্বোচ্চ তলে থাকবেন না সর্বনিম্ন তলে, সেই পছন্দ একান্তই ব্যক্তিগত। আপনার ও পরিবারের দৈনন্দিন জীবনযাপনের সঙ্গে সাযুজ্য রেখেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত। যেমন, বাড়িতে বয়স্ক বা অসুস্থ সদস্য থাকলে নীচের তলায় ফ্ল্যাট কেনা শ্রেয়। অন্য দিকে, খোলা জায়গা, সূর্যালোক, প্রকৃতির দৃশ্য এবং কোলাহল মুক্ত জীবনযাপন পছন্দ হলে আপনার উপরের তলাতেই থাকা উচিত।

এই প্রতিবেদনটি ‘আনন্দ উৎসব’ ফিচারের একটি অংশ।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE