Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০২ জুলাই ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

পুজোয় ব্যবহার করতে পারেন নানা ফিচারে ঠাসা রিয়েলমি-র ফাইভ সিরিজ

রিয়েলমি ফাইভ প্রো হল রিক্রিস্টাল ডিজাইন। এতে আছে হলোগ্রাফিক কালার এফেক্ট।

অলোক ভট্টাচার্য
কলকাতা ০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১৬:২৫
Save
Something isn't right! Please refresh.
রিয়েলমি ফাইভ প্রো

রিয়েলমি ফাইভ প্রো

Popup Close

নামটা বেশ গোলমেলে। অনেকেই প্রথমে শুনে অন্য একটি চিনা সংস্থার সঙ্গে গুলিয়ে ফেলতে পারেন। সেই চিনা সংস্থাটি এর মধ্যেই ভারতের বাজারে নিজের কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠা করেছে। তা হলে সেই সংস্থাই কি সম্পূর্ণ নতুন নামে কোনও ফোন আনছে? না, ভুল। রিয়েলমি একেবারেই স্বতন্ত্র একটি সংস্থা। সেই রিয়েলমি নিয়ে এসেছে তাদের নতুন ফোনের সিরিজ, রিয়েলমি ফাইভ সিরিজ। সংস্থার তরফ থেকে জানানো হয়েছে, এখন এ দেশে এক কোটি মানুষ রিয়েলমি-র ফোন ব্যবহার করছেন। রিয়েলমি ফাইভ এবং রিয়েলমি ফাইভ প্রো-র মাধ্যমে সেই সংখ্যাটি আরও বাড়বে বলে আশা সংস্থার। কিছু দিন আগেই এই সিরিজের ফোনগুলি আত্মপ্রকাশ করেছে।

প্রথমে বলা যাক রিয়েলমি ফাইভ প্রো-র কথা। কথায় বলে না, ‘পহেলে দর্শনধারী, পিছে গুণবিচারি’, তাই আগে ফোনটি কেমন দেখতে হবে তাই বলা যাক। ফাইভ প্রো হল রিক্রিস্টাল ডিজাইন। এতে আছে হলোগ্রাফিক কালার এফেক্ট। নীল ও সবুজ— দু’টি রঙের ফাইভ প্রো ফোন বাজারে নিয়ে আসছে রিয়েলমি। ফাইভ প্রো-এ থাকছে ৬.৩ ইঞ্চি ফুল স্ক্রিন। এর স্ক্রিন কর্নিং গোরিলা গ্লাসের তৈরি এবং এতে আছে ডিউ ড্রপ নচ।

দিনে দিনে ফোনে ক্যামেরার সংখ্যা বাড়ছে। ফাইভ প্রো-র পিছনে সংখ্যাটি দাঁড়িয়েছে চারটিতে। এর মধ্যে সব চেয়ে শক্তিশালী বা প্রধান ক্যামেরাটি ৪৮ মেগাপিক্সেলের। এর অ্যাপারচার এফ/১.৮। আর একটি ক্যামেরা আট মেগাপিক্সেলের। এটি আল্ট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ক্যামেরা। এর অ্যাপারচার এফ/২.২৫। এ ছাড়া একটি ২ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা রয়েছে পোর্ট্রেট তোলার জন্য। আর আছে ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রোশুটার। আর সামনের ক্যামেরার কথা না বললেই চলে না। কারণ, নিজস্বী তোলা তো প্রায় নেশায় পরিণত হয়েছে। ফাইভ প্রো সামনের ক্যামেরাটি ১৬ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা। এর অ্যাপারচার এফ/২।

Advertisement

আরও পড়ুন: ৩২ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা আনল ভিভো​

এ বার আসি ফোনের প্রাণভোমরার কথায়। ফাইভ প্রো-র সেই প্রাণভোমরাটি কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৭১২ এসওসি। বেশ কয়েক বছর ধরে বিভিন্ন সংস্থা একই ফোন নানা জিবির র‌‌‌্যাম ও মেমোরির জায়গা ব্যবহার করে একই ফোনের বেশ কয়েকটি সংস্করণ বাজারে নিয়ে আসে। ফাইভ প্রো-ও ব্যতিক্রম নয়। এই ফোনে সব থেকে বেশি ৮ জিবি র‌্যাম থাকবে। আর জায়গা থাকবে সব চেয়ে বেশি, ১২৮ জিবি। আর ফোনের শক্তির উৎস ব্যাটারির কথা না বললেই নয়। ফাইভ প্রো-র ব্যাটারি থাকবে ৪০২৫ এমএএইচ সঙ্গে ভিওওসি ৩.০ ফাস্ট চার্জার।

আরও পড়ুন: পুজোয় বাইরে যাচ্ছেন? বাড়ি সুরক্ষিত রাখবেন কী করে?

ফাইভ প্রো-র পাশাপাশি রিয়েলমি নিয়ে এসেছে ফাইভ। এই ফোনে প্রো-র থেকে কিছু কিছু জিনিস কম থাকবে সেটা আন্দাজ করে নেওয়াই যায়। এটি আসছে ক্রিস্টাল নীল, ক্রিস্টাল বেগুনি রঙে। এর ডিসপ্লে অবশ্য ফাইভ প্রো-র থেকে বড়, ৬.৫ ইঞ্চি মিনি-ড্রপ ফুলস্ক্রিন ডিসপ্লে। একই সঙ্গে ফাইভ প্রো-র মতো এখানেও চারটি ক্যামেরা দিচ্ছে রিয়েলমি। তবে এর মূল ক্যামেরাটি ৪৮ মেগাপিক্সেলের বদলে ১২ মেগাপিক্সেলের। বাকি ক্যামেরাগুলি প্রো ভার্সনটির মতোই। তবে আরও একটি ক্ষেত্রে প্রো-র থেকে এটি এগিয়ে রয়েছে। তা হল, এর ৫,০০০ এমওএইচ ব্যাটারি। আর রিয়েলমি ৫-এর প্রসেসর হল কোয়ালকম স্ন্যাপ ড্রাগন ৬৬৫ এসওসি। পাশাপাশি, এই সিরিজের সব ফোনকে জলের ঝাপটা থেকে সুরক্ষিত রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এই সিরিজের দাম শুরু হচ্ছে ১০ হাজার টাকা থেকে। সর্বোচ্চ দাম ১৭ হাজার টাকা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement