মার্কিন শেয়ার বাজারের ধাক্কায় ফের টালমাটাল ভারতের বাজার। বৃহস্পতিবার ভারতীয় সময়ে গভীর রাতে আমেরিকায় ডাও জোন্স সূচক ১,০০০ পয়েন্ট পড়েছিল। তার জেরে শুক্রবার ভারতে সেনসেক্স নামল ৪০৭ পয়েন্ট। নিফ্‌টিও পড়ল ১২১.৯০ পয়েন্ট। বাজারের এই টালমাটাল অবস্থা কিছুটা শান্ত করতে এ দিনই সিঙ্গাপুরের এক্সচেঞ্জে নিফ্‌টির আগাম লেনদেন বন্ধের কথা জানাল এনএসই, বিএসই এবং মেট্রোপলিটন স্টক এক্সচেঞ্জ।

বিশেষজ্ঞ দীপঙ্কর চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘‘বিদেশে সুদ কম। তাই উঁচু কুপন রেটের বন্ড এলে আকৃষ্ট হন লগ্নিকারী। আমেরিকায় তা-ই হচ্ছে।’’ উল্লেখ্য, গত দু’টি লেনদেনের দিনে ভারতে ৩,৬৪৯ কোটি টাকার শেয়ার বেচেছে বিদেশি লগ্নিকারী সংস্থাগুলি।

গত কয়েক দিন মার্কিন বাজারে পতনের পরের দিন ভারতেও দ্রুত সূচক পড়ছে। কিছু ক্ষেত্রে বাজার খোলার আগেই। কারণ, সিঙ্গাপুরে সিজিএক্স নিফ্‌টির আগাম লেনদেন শুরু হয় ভারতে বাজার খোলার ঘণ্টা দুই আগে। ফলে সেখানেই পড়ে যাচ্ছে নিফ্‌টি। তাই দেশীয় লগ্নিকারীরা সকালে শেয়ার বেচে আর লোকসান কমাতে পারছেন না। সেই সমস্যায় রাশ টানতেই এই সিদ্ধান্ত।

তৃতীয় ত্রৈমাসিকে স্টেট ব্যাঙ্ক গোষ্ঠীর লোকসান হয়েছে ১,৮৮৭ কোটি। যা চমকে দিয়েছে অনেককে। বাজারে তার কী প্রভাব পড়ে, সে দিকেও নজর অনেকের।