Follow us on
Powered by
Co-Powered by
Co-Sponsors
Powered by
Co-Powered by
Co-Sponsors

আমাদের খেলা দেখতে তখন টলিউডের সুন্দরীরাও মাঠ ভরাতেন

কলকাতা| ০১ মার্চ ২০২১ ১৩:১৮ শেষ আপডেট: ০১ মার্চ ২০২১ ১৩:১৮
শিশির ঘোষ, ফুটবলার
শিশির ঘোষ, ফুটবলার

কালের নিয়মে কলকাতা অনেক বদলে গিয়েছে। সেটা অবশ্য স্বাভাবিক। তবে কলকাতার মানুষের ভালবাসা এখনও একই রকম আছে। আমিও অনেকের মতো মফঃস্বল থেকে কলকাতায় খেলতে আসতাম। তফাত শুধু তখন রিষড়া থেকে লোকাল ট্রেনে চেপে হাওড়ায় নামতাম। আর এখন নিজের গাড়িতে যাতায়াত করি। তবে মাঝেমধ্যে এখনও লোকাল ট্রেনে চেপে যাই। লোকজন চিনতে পেরে দুটো কথা বললে মন্দ লাগে না।

তবে খেলোয়াড় পরবর্তী জীবনে অনেক বদল ঘটেছে। তেমনই কলকাতা জুড়ে এখন একাধিক শপিং মলের ছড়াছড়ি। সবার হাতে এখন দামি স্মার্ট ফোন। এগুলোও তো বদল। মাঠ-ময়দানের সঙ্গে জড়িয়ে থাকার সুবাদে আরও একটা বদল খুবই চোখে পড়েছে। ফুটবলেও এসেছে পেশাদারিত্ব। একটা সময় দল বদলের বাজারে আমার একটা ডায়ালগ বেশ জনপ্রিয় হয়েছিল। ‘হাতে টাকা, পায়ে বল’। সেটা শুধু জনপ্রিয়ই হয়নি। সেই বক্তব্যকে ঘিরে অনেক বিতর্কও হয়েছিল।

তবে দেখুন আজকের যুগে এই নিয়মই তো চলছে। মোহনবাগান-ইস্টবেঙ্গল ছেড়ে দিন, ময়দানের তথাকথিত ছোট ক্লাবের ফুটবলাররা বিনা পারিশ্রমিকে কিন্তু এখন মাঠে নামবে না। এগুলোও কিন্তু কলকাতারই বদল। কারণ সেই কথা শুনতে বেশ সাদামাটা মনে হলেও অন্তর্নিহিত অর্থ কিন্তু বেশ গভীর।

তবে কলকাতার অনেক বদল ভাল লাগলেও, আমার প্রিয় ময়দান এখন অনেক ম্যাড়মেড়ে। সাধারণ ম্যাচ কিংবা ডার্বির কথা ছেড়ে দিন, আমাদের সময় দুই প্রধানের অনুশীলন দেখতেও প্রচুর মানুষ গ্যালারি ভরিয়ে দিতেন। এমনকি টলিউডের বেশ কিছু সুন্দরীকেরও মাঠে আনাগোনা করতে দেখেছি। কিন্তু এখন সেগুলো শুধুই অতীত। সোনালি অতীত।

আরও পড়ুন