Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৯ ডিসেম্বর ২০২২ ই-পেপার

Traditional Kolkata Home decor: উত্তর কলকাতার পুরনো ধাঁচের বাড়িতে বাস? সাজিয়ে তুলুন নতুন ভাবে

বাড়ি যদি হয় পুরনো দিনের, তবে তা-ও কিন্তু সৃজনশীল ভাবনায় আরামদায়ক এবং দৃষ্টিনন্দন ভাবে সাজিয়ে ফেলা যায়।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২২ ১৩:৩৪

‘ক্যালকাটা বাঙ্গলো’। পুরনো বাড়ি নতুন করে সাজিয়ে তুলে হোটেলে পরিণত করা হয়েছে শ্যামবাজার-এলাকার এই বাড়িটি।

কলকাতা শহরের বেশির ভাগ মানুষ আদতে বেশ শৌখিন। এবং তা এঁদের অন্দরসজ্জার ক্ষেত্রে প্রথমে চোখে পড়ে। বাড়ি যদি হয় পুরনো দিনের, তবে তা-ও কিন্তু সৃজনশীল ভাবনায় আরামদায়ক এবং দৃষ্টিনন্দন ভাবে সাজিয়ে ফেলা যায়। প্রকৃতপক্ষে উত্তর কলকাতার কোনও পুরনো বাড়ি যদি হয় আপনার আবাসস্থল, তবে তা অন্য ভাবে সাজিয়ে ফেলতে পারেন সহজেই। রইল কিছু বিশেষ পরামর্শ।

পুরনো ছবি
অনেক বছরের বাড়ি হলে তার ইতিহাস ধরা থাকে বিভিন্ন ছবিতে। সেই ছবি বিভিন্ন ফ্রেমে সাজিয়ে আপনি লাগাতে পারেন কোনও একটি দেওয়ালে কিংবা সিঁড়ির ধারে। এতে আপনার নিজের শিকড়ের কাছাকাছি থাকার পরোক্ষ সুযোগও ঘটবে। তা ছাড়া ঘরেও আসবে একটু অন্য চেহারা।

রং
বাড়ির বিভিন্ন দেওয়ালে লাগান উজ্জ্বল রং। সবুজ, হালকা নীল, গোলাপি এমনকি সাদা রং দেওয়ালে থাকলেও সেই ঘর অনেকটাই বড় দেখাবে। তা ছাড়া পুরনো দিনের বাড়ি হলে ফিকে হয়ে আসা দেওয়ালের রং আপনার মানসিক স্বাস্থ্যের উপরেও প্রভাব ফেলতে পারে। ঘরে চার দেওয়ালে একই রং না লাগিয়ে আপনি লাগাতে পারেন একাধিক রং। এতে ঘরের ভোল একেবারে বদলে যাবে।

Advertisement
পার্ক স্ট্রিটের এই পেন্টহাউসটির ধাঁচেও আপনি সাজিয়ে তুলতে পারেন আপনার ঘর।

পার্ক স্ট্রিটের এই পেন্টহাউসটির ধাঁচেও আপনি সাজিয়ে তুলতে পারেন আপনার ঘর।


ন্যূনতম আসবাব
বিনা প্রয়োজনে গোটা বাড়ি আসবাবে বোঝাই করবেন না। বাড়ি পুরনো দিনের হলে অনেক রকম আসবাব আপনার সংগ্রহে থাকতেই পারে। কিন্তু তারই মধ্যে যেগুলির অবস্থা খারাপ এবং সারিয়ে নেওয়া আর সম্ভব নয় সেগুলি ঘরে রাখবেন না। বরং পোক্ত আসবাবগুলি রং বা পালিশ করিয়ে নিয়ে বড়সড় ঘরের বিভিন্ন কোণে রাখতে পারেন। খাবার ঘরে কাঠের টেবিল এবং চেয়ারও একটু পালিশ করে নতুন ধাঁচের টেবিল ঢাকনা দিয়ে সাজান।
পর্দা
ঘরে জানলা ও দরজার পর্দা হোক লম্বা লম্বা। তবে আলো বাতাস বন্ধ করে দেয় এমন ভারী পর্দা ব্যবহার না করাই ভাল। কয়েক দশক আগেও কলকাতা শহরে বাড়ির জানলা ও দরজায় ব্যবহার করা হত খড়খড়ির পাল্লা। তা বদলে না ফেলে সুন্দর রং করে হালফ্যাশনের পর্দা দিয়ে আড়াল করুন। এতে বাইরে থেকেও আপনার বাসস্থানের ধাঁচটি হবে ব্যতিক্রমী।
আয়না
বাড়ি যদি অনেক দিনের পুরনো হয় তবে দেওয়ালে অনেক সময়ই নানা ধরনের ফাটল দেখা দেয়, যা আপনার অন্দরসজ্জাকে ক্ষতিগ্রস্ত করে তুলতে পারে। এই খুঁত ঢাকতে আয়না হতে পারে উপযুক্ত সমাধান। আয়না একটি বিভ্রম তৈরি করে। এতে প্রতিফলিত আলো ঘর বাস্তবের তুলনায় বড় এবং প্রশস্ত করে তোলে। জানালার পাশে আয়না রাখলে মনে হয় আপনার ঘরে আরও একটি জানালা আছে।

Advertisement