Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৬ মে ২০২২ ই-পেপার

Things to Do in Kolkata: বৈচিত্র আর ইতিহাসের মিশেলে একটা দিন কাটাবেন? ঘুরে আসুন কলকাতার আনাচেকানাচে

কলকাতা শহরের আনাচেকানাচে ছড়িয়ে আছে এমন অনেক জায়গাই যেখানে পা দিলে সারা জীবনের জন্য সে অভিজ্ঞতা স্মরণীয় হয়ে থেকে যাবে।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৫ জানুয়ারি ২০২২ ১৩:২৩

প্রতীকী ছবি

কলকাতা শহরের ইতিহাস তিন শতাব্দীরও বেশি প্রাচীন। এই মহানগরীতে প্রতি দিন আনাগোনা করেন হাজার হাজার মানুষ। কেউ কাজের সূত্রে, কেউ পড়াশোনার প্রয়োজনে, কেউ হয়তো বাসা বাঁধতে, কেউ আবার আসেন নতুন এক শহরকে চেনার তাগিদে। এই শহরের আনাচেকানাচে ছড়িয়ে আছে এমন অনেক জায়গাই যেখানে পা দিলে সারা জীবনের জন্য সেই অভিজ্ঞতা স্মরণীয় হয়ে রয়ে যাবে। ইতিহাস, আনন্দ, বৈচিত্র, এই সবই মিলেমিশে থেকে যাবে এমন সব অভিজ্ঞতায়।

ফুলের বাজার যেন চোখ এড়িয়ে না যায়
প্রচুর রং, সুগন্ধ, ফুলের পাপড়ি এবং মানুষ আপনার জন্য অপেক্ষা করছে কলকাতার ফুলপট্টিতে। কলকাতার এই বিশাল ফুলের বাজার পরিদর্শন করার সেরা সময় সূর্যোদয়ের ঠিক পরে। এই সময় ফুলগুলি সবচেয়ে তাজা হয়। সুতরাং, আপনি অপূর্ব সুন্দর সব রং এবং এই শহরের সেরা কিছু ফুল দেখতে পাবেন! এই অঞ্চল থেকে ফুল এই শহরের এবং শহরতলির বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে যায় রোজই।

Advertisement
 কলকাতার ফুলপট্টি

কলকাতার ফুলপট্টি


জলখাবার খান চিনা কায়দায়
আমরা সকলেই কলকাতার চায়নাটাউনের কথা শুনেছি। এটি এমন একটি জায়গা যেখানে অন্য এক সংস্কৃতি বাঙালির রন্ধ্রে রন্ধ্রে মিশে গেছে। এমন করে এই মিলমিশ আপনি এই শহরের অন্য কোথাও পাবেন না। তবে শুধু ট্যাঙ্গরা নয়, আরও অনেকটা অঞ্চল জু়ড়ে যে এই সংস্কৃতির মানুষ বাস করে এ শহরে, তা অনেকেই জানেন না। এজগার স্ট্রিটের কাছে টেরিটি বাজার নামে পরিচিত, বিভিন্ন মুখরোচক খাবারের এটি তীর্থ। তবে আপনি যদি নিরামিষভোজী হন তবে এখানে না যাওয়াই ভাল। কলকাতায় যেহেতু মাছপ্রেমীদের ভিড় বেশি, তাই এখানে মাছ-মাংসের বিভিন্ন লোভনীয় পদ মিলবে। তবে যেতে হবে ভোরবেলা। সকাল ৭টার মধ্যে যাবতীয় গরমা-গরম খাবার সব উধাও হয়ে যায়।

কলেজ স্ট্রিট এশিয়ার বৃহত্তম বইয়ের বাজার

কলেজ স্ট্রিট এশিয়ার বৃহত্তম বইয়ের বাজার


ঘুরে আসুন বই-পাড়ায়
আপনি যদি বইয়ের পোকা হন, তবে এটি আপনার তালিকার অংশ হবে অবশ্যই। কলেজ স্ট্রিট এশিয়ার বৃহত্তম বইয়ের বাজার। স্কুল-কলেজের বই থেকে শুরু করে বিশ্বখ্যাত সব লেখকের খ্যাতি পাওয়া সব বই খুঁজলে পাওয়া যাবে এই অঞ্চলে। কলকাতার এই অঞ্চলে বহু দুষ্প্রাপ্য বই কম দামে মিলবে। এটি বিশ্বের বৃহত্তম পুরনো বইয়ের বাজারও বটে। এখানে আপনি সারা দিন নানা বয়সের বইপ্রেমীদের দেখতে পাবেন দরাদরি করে বই কিনতে।

 ২৫৫ বছর বয়সি একটি বড় বট যা ৩.৫ একর জুড়ে রয়েছে

২৫৫ বছর বয়সি একটি বড় বট যা ৩.৫ একর জুড়ে রয়েছে


পৃথিবীর বৃদ্ধতম বটগাছের তলায় দুপুর কাটান
শিবপুরের ভারতীয় বোটানিক্যাল গার্ডেনে বিশ্বের সবচেয়ে প্রশস্ত গাছ রয়েছে, একটি ২৫৫ বছর বয়সি একটি বড় বট যা ৩.৫ একর জুড়ে রয়েছে। দূর থেকে, যেটি একাধিক গাছের মতো দেখায় তা হল এর ৩৬০০টি বায়বীয় শিকড়। এটি উনিশ শতকের দুটি ঘূর্ণিঝড় থেকেও বেঁচে গিয়েছে। এবং আরও প্রশস্ত থেকে প্রশস্ততর হচ্ছে। এই গাছ নিয়ে বহু সাহিত্যিক বহু বিখ্যাত লেখা লিখে গিয়েছেন। শিবপুরের এই বোটানিক্যাল গার্ডেনের বটগাছের তলায় গ্রীষ্মের দুপুরেও আপনি অনুভব করবেন স্বস্তি।



গন্তব্য কুমোরটুলি
শিল্পীর স্বর্গ এই কুমোরটুলি আসলে সৌন্দর্য, রং এবং শিল্পময় একটি অঞ্চল যাকে শব্দের মাধ্যমে যথাযথ প্রকাশ করা যায় না। কলকাতায় এমন অনেক গাইড বা ম্যাপ রয়েছে যা আপনাকে এই পাড়ার মধ্য দিয়ে নিয়ে যাবে। কিন্তু যদি আপনি সত্যিই এই অঞ্চলটিকে আবিষ্কার করতে চান তা হলে নিজে নিজে হেঁটে দেখাই একমাত্র উপায়। এটি শত শত শিল্পীর আবাসস্থল। এক সময় এই অঞ্চলে শুধু কুমোরদেরই বসবাস ছিল। কিন্তু এখন এখানে আরও নানা পেশার মানুষজন থাকেন। কলকাতা ও তার পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে এমনকি, বিদেশেও এই কুমোরটুলি থেকে পূজার জন্য প্রতিমা বানিয়ে পাঠানো হয়। দুর্গাপূজার সময় তো বটেই, তা ছাড়াও বছরের বিভিন্ন সময়ে এই অঞ্চলে পা দিলে আপনি প্রতিমা বানানোর প্রক্রিয়া চাক্ষুষ করতে পারবেন।

গঙ্গাবক্ষে নৌকোয় দেখুন সূর্যাস্ত
গঙ্গা নদী হিন্দু ধর্মে গুরুত্বপূর্ণ কারণ অনেকে বিশ্বাস করেন এটি দেবী গঙ্গা হিসাবে মূর্ত। সুতরাং, এটি কলকাতা শহরের স্থানীয় সংস্কৃতিতে একটি বিশাল ভূমিকা পালন করে। মানুষ আজও বিশ্বাস করে যে গঙ্গায় স্নান করলে তবে আপনার পাপ থেকে মুক্তি পাবেন। কিন্তু দর্শক হিসেবে এই নদীর সৌন্দর্য এড়িয়ে যাওয়া সম্ভব নয়। কলকাতার উপর গঙ্গার একাধিক ঘাট রয়েছে যেখান থেকে নৌকো ভাড়া করে কিছুক্ষণের জন্য আপনি গঙ্গায় দিনের শেষ আলো মিলিয়ে যাওয়ার অভিজ্ঞতা সঞ্চয় করতে পারবেন। এছাড়া নামিদামি সংস্থা থেকে মাঝেমধ্যেই ক্রুজ চাপার বন্দোবস্ত করা হয় যা আপনাকে বিশেষ আনন্দময় অভিজ্ঞতা দিতে পারে।



Tags:

Advertisement