Follow us on
Powered by
Co-Powered by
Co-Sponsors
Powered by
Co-Powered by
Co-Sponsors

বাঙালির কাছে উটির আকর্ষণ চিরসবুজ

'উদাগামণ্ডলম' আদি নাম হলেও লোকের মুখে পরিচিত 'উটি' হিসেবেই।

শ্রুবা ভট্টাচার্য
কলকাতা| ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১৯:৩৪ শেষ আপডেট: ০২ মার্চ ২০২১ ১১:৪৩

'উদাগামণ্ডলম' আদি নাম হলেও লোকের মুখে পরিচিত 'উটি' হিসেবেই। নীলগিরি পর্বতমালার কোলে তামিলনাড়ুর নীলগিরি জেলার ছোট্ট শহর উটি। টোডা জনজাতি অধ্যুষিত এই জায়গা যেন আপনাকে মনে করিয়ে দেবে শাহরুখ খানের সেই টয়ট্রেনের উপরে উঠে 'ছাইয়া ছাইয়া' নাচের কথা।

কোথায় কোথায় ঘুরবেন –

১. উটি লেক – উটি সফরের এক অসাধারণ অংশ হিসেবে আপনি উটি হ্রদকে বাদ দিতে পারবেন না। এই হ্রদটি বোটিংয়ের জন্যে বেশ বিখ্যাত।

২. এমারেল্ড হ্রদ – উটি থেকে ২৫ কিলোমিটার দূরত্বে এই হ্রদটি অবস্থিত। সাইলেন্ট ভ্যালিতে রয়েছে এই হ্রদটি। এটি বনভোজনের এক আদর্শ জায়গা।

৩. বোট্যানিক্যাল গার্ডেন – ৫৫ একরের বেশি জায়গা জুড়ে এই বোট্যানিক্যাল গার্ডেন উটির অন্যতম আকর্ষণ। এখানে প্রায় ২০ মিলিয়ন বছর আগেকার একটি গাছের কাণ্ডের জীবাশ্ম রয়েছে।

৪. দোদাবেতা চূড়া – উটিতে গিয়ে ২৬২৩ মিটার উঁচু এই পাহাড়শীর্ষ না দেখলেই নয়।

এ ছাড়াও উটিতে কালহাট্টি জলপ্রপাত, মুদুমালাই জাতীয় উদ্যান, নিডল রক ভিউ পয়েন্ট ইত্যাদিও আপনার দৃষ্টি আকর্ষণ করবে।


কী ভাবে যাবেন –

কলকাতা থেকে কোনও সরাসরি ট্রেন নেই উটি যাওয়ার জন্য। আপনাকে ভেঙে ভেঙেই যাতায়াত করতে হবে। প্রথমে কোনও ট্রেন যা চেন্নাই যায়, তাতে উঠে পড়তে হবে। সেখানে যেতে প্রায় ৩০ ঘণ্টার মতো সময় লাগবে আপনার। এক দিন চাইলে চেন্নাই ঘুরেও নিতে পারেন। সেখান থেকে মেট্টুপালায়াম স্টেশন। প্রায় ১০ ঘণ্টার পথ। সেখান থেকে ট্রেনে করে কুন্নুর, প্রায় ২ ঘণ্টা। চাইলে আপনি গাড়ি ভাড়াও করতে পারেন। সবচেয়ে ভাল হয় মেট্টুপালায়াম থেকে টয়ট্রেনে চেপে যাওয়া। সরাসরি উটি স্টেশন। এ ছাড়াও আপনি প্লেনে করে চলে যেতে পারেন চেন্নাই অথবা কোয়েম্বাতুর। সেখান থেকে একই ভাবে উটি যাত্রা।

কোথায় থাকবেন –

পর্যটন স্থান হওয়ায় উটিতে থাকার জায়গার অভাব নেই। আগে থেকে আপনি মোবাইল অ্যাপেও বুক করে রাখতে পারেন আপনার পছন্দসই হোটেল ও ঘর।

আরও পড়ুন