Advertisement
২২ এপ্রিল ২০২৪
Govinda

‘তাল’ থেকে ‘দেবদাস’, কোন কোন হিট হিন্দি ছবিতে অভিনয়ের সুযোগ পেয়েও ছেড়ে দিয়েছিলেন গোবিন্দ?

‘আঁখে’, ‘রাজা বাবু’, ‘কুলি নম্বর ওয়ান’, ‘হিরো নম্বর ওয়ান’, ‘হসিনা মান জায়েগি’ এবং ‘বড়ে মিঞা ছোটে মিঞা’র মতো হিট ছবি রয়েছে গোবিন্দের কেরিয়ারের ঝুলিতে। এখন অভিনয় জগৎ থেকে শতহস্ত দূরে রয়েছেন তিনি।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ০২ মার্চ ২০২৪ ১২:৫৫
Share: Save:
০১ ১৫
নব্বইয়ের দশকে একের পর এক হিট ছবিতে অভিনয় করে সাফল্যের চূড়ায় পৌঁছেছিলেন গোবিন্দ। অভিনয়ের পাশাপাশি নাচের জন্যও দর্শকের প্রশংসা কুড়িয়েছিলেন তিনি।

নব্বইয়ের দশকে একের পর এক হিট ছবিতে অভিনয় করে সাফল্যের চূড়ায় পৌঁছেছিলেন গোবিন্দ। অভিনয়ের পাশাপাশি নাচের জন্যও দর্শকের প্রশংসা কুড়িয়েছিলেন তিনি।

০২ ১৫
হিন্দি ফিল্মজগতের অন্যতম শ্রেষ্ঠ কৌতুকাভিনেতা হিসাবে পরিচিতি পেয়েছিলেন গোবিন্দ। তবে কেরিয়ারে একাধিক হিট ছবিতে অভিনয়ের সুযোগ হাতছাড়া করতে হয়েছিল তাঁকে।

হিন্দি ফিল্মজগতের অন্যতম শ্রেষ্ঠ কৌতুকাভিনেতা হিসাবে পরিচিতি পেয়েছিলেন গোবিন্দ। তবে কেরিয়ারে একাধিক হিট ছবিতে অভিনয়ের সুযোগ হাতছাড়া করতে হয়েছিল তাঁকে।

০৩ ১৫
১৯৮৯ সালে যশ চোপড়ার পরিচালনায় প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায় ‘চাঁদনি’। ঋষি কপূরের বিপরীতে এই ছবিতে অভিনয় করেন শ্রীদেবী। মুক্তির পর ছবি হিট করার পাশাপাশি দর্শকদের আলোচনায় উঠে আসে পর্দায় ঋষি এবং শ্রীদেবীর সম্পর্কের রসায়ন।

১৯৮৯ সালে যশ চোপড়ার পরিচালনায় প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায় ‘চাঁদনি’। ঋষি কপূরের বিপরীতে এই ছবিতে অভিনয় করেন শ্রীদেবী। মুক্তির পর ছবি হিট করার পাশাপাশি দর্শকদের আলোচনায় উঠে আসে পর্দায় ঋষি এবং শ্রীদেবীর সম্পর্কের রসায়ন।

০৪ ১৫
ঋষি নন, ‘চাঁদনি’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য প্রথমে গোবিন্দকে প্রস্তাব দেওয়া হয় বলে বলিপাড়া সূত্রে খবর। কিন্তু হুইলচেয়ারে বসে অভিনয় করতে হবে জানার পর তিনি এই প্রস্তাব খারিজ করে দেন।

ঋষি নন, ‘চাঁদনি’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য প্রথমে গোবিন্দকে প্রস্তাব দেওয়া হয় বলে বলিপাড়া সূত্রে খবর। কিন্তু হুইলচেয়ারে বসে অভিনয় করতে হবে জানার পর তিনি এই প্রস্তাব খারিজ করে দেন।

০৫ ১৫
১৯৯৯ সালে সুভাষ ঘাইয়ের পরিচালনায় প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায় ‘তাল’ ছবিটি। এই ছবিতে মুখ্যচরিত্রে অভিনয় করেন ঐশ্বর্যা রাই বচ্চন, অনিল কপূর এবং অক্ষয় খন্না। মুক্তির পর ছবিটির পাশাপাশি ছবির গানগুলিও হিট হয়।

১৯৯৯ সালে সুভাষ ঘাইয়ের পরিচালনায় প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায় ‘তাল’ ছবিটি। এই ছবিতে মুখ্যচরিত্রে অভিনয় করেন ঐশ্বর্যা রাই বচ্চন, অনিল কপূর এবং অক্ষয় খন্না। মুক্তির পর ছবিটির পাশাপাশি ছবির গানগুলিও হিট হয়।

০৬ ১৫
বলিপাড়া সূত্রে খবর, অনিল নন, বরং‌ গোবিন্দকে প্রথমে পছন্দ করেছিলেন ‘তাল’ ছবির নির্মাতারা। কিন্তু সুভাষের সঙ্গে ছবির নাম নিয়ে মতের অমিল দেখা দেয় গোবিন্দের।

বলিপাড়া সূত্রে খবর, অনিল নন, বরং‌ গোবিন্দকে প্রথমে পছন্দ করেছিলেন ‘তাল’ ছবির নির্মাতারা। কিন্তু সুভাষের সঙ্গে ছবির নাম নিয়ে মতের অমিল দেখা দেয় গোবিন্দের।

০৭ ১৫
বলিপাড়ায় কানাঘুষো শোনা যায়, ‘তাল’ ছবির নাম পরিবর্তন করতে চেয়েছিলেন গোবিন্দ। অভিনেতার শর্তে সুভাষ রাজি না হওয়ায় গোবিন্দ এই ছবিতে অভিনয়ের প্রস্তাব খারিজ করে দেন। তার পর অনিলকে অভিনয়ের প্রস্তাব দিলে তিনি রাজি হয়ে যান।

বলিপাড়ায় কানাঘুষো শোনা যায়, ‘তাল’ ছবির নাম পরিবর্তন করতে চেয়েছিলেন গোবিন্দ। অভিনেতার শর্তে সুভাষ রাজি না হওয়ায় গোবিন্দ এই ছবিতে অভিনয়ের প্রস্তাব খারিজ করে দেন। তার পর অনিলকে অভিনয়ের প্রস্তাব দিলে তিনি রাজি হয়ে যান।

০৮ ১৫
২০০১ সালে অনিল শর্মার পরিচালনায় প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায় সানি দেওল এবং অমিশা পটেল অভিনীত ‘গদর: এক প্রেম কথা’। এক পুরনো সাক্ষাৎকারে গোবিন্দ জানিয়েছিলেন, এই ছবিতে অভিনয়ের জন্য প্রথমে তাঁকে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল।

২০০১ সালে অনিল শর্মার পরিচালনায় প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায় সানি দেওল এবং অমিশা পটেল অভিনীত ‘গদর: এক প্রেম কথা’। এক পুরনো সাক্ষাৎকারে গোবিন্দ জানিয়েছিলেন, এই ছবিতে অভিনয়ের জন্য প্রথমে তাঁকে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল।

০৯ ১৫
সাক্ষাৎকারে গোবিন্দ জানিয়েছিলেন, ‘গদর: এক প্রেম কথা’ ছবিতে তাঁকে অভিনয়ের প্রস্তাব দিলেও তিনি রাজি হননি। তাঁর মতে ছবিতে এমন কিছু সংলাপ ছিল যার মধ্যে রাজনৈতিক ছাপ লক্ষ করেছিলেন তিনি। ভবিষ্যতে তা নিয়ে কোনও রকম বিতর্কে জড়াতে চাননি বলে এই ছবিতে অভিনয়ের প্রস্তাব খারিজ করে দেন তিনি।

সাক্ষাৎকারে গোবিন্দ জানিয়েছিলেন, ‘গদর: এক প্রেম কথা’ ছবিতে তাঁকে অভিনয়ের প্রস্তাব দিলেও তিনি রাজি হননি। তাঁর মতে ছবিতে এমন কিছু সংলাপ ছিল যার মধ্যে রাজনৈতিক ছাপ লক্ষ করেছিলেন তিনি। ভবিষ্যতে তা নিয়ে কোনও রকম বিতর্কে জড়াতে চাননি বলে এই ছবিতে অভিনয়ের প্রস্তাব খারিজ করে দেন তিনি।

১০ ১৫
গোবিন্দ একট পুরনো সাক্ষাৎকারে দাবি করেছিলেন যে, বলিপাড়ার প্রথম সারির ছবিনির্মাতা সঞ্জয় লীলা ভন্সালী তাঁর ছবিতে গোবিন্দকে অভিনয়ের প্রস্তাব দিয়েছিলেন। কিন্তু সঞ্জয়ের প্রস্তাব নাকি ফিরিয়ে দিয়েছিলেন অভিনেতা।

গোবিন্দ একট পুরনো সাক্ষাৎকারে দাবি করেছিলেন যে, বলিপাড়ার প্রথম সারির ছবিনির্মাতা সঞ্জয় লীলা ভন্সালী তাঁর ছবিতে গোবিন্দকে অভিনয়ের প্রস্তাব দিয়েছিলেন। কিন্তু সঞ্জয়ের প্রস্তাব নাকি ফিরিয়ে দিয়েছিলেন অভিনেতা।

১১ ১৫
২০০২ সালে সঞ্জয়ের পরিচালনায় প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায় ‘দেবদাস’ ছবিটি। মুখ্যচরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যায় শাহরুখ খান, ঐশ্বর্যা রাই বচ্চন এবং মাধুরী দীক্ষিত। এই ছবিতে নাকি গোবিন্দকে অভিনয়ের প্রস্তাব দিয়েছিলেন সঞ্জয়।

২০০২ সালে সঞ্জয়ের পরিচালনায় প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায় ‘দেবদাস’ ছবিটি। মুখ্যচরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যায় শাহরুখ খান, ঐশ্বর্যা রাই বচ্চন এবং মাধুরী দীক্ষিত। এই ছবিতে নাকি গোবিন্দকে অভিনয়ের প্রস্তাব দিয়েছিলেন সঞ্জয়।

১২ ১৫
‘দেবদাস’ ছবিতে শাহরুখের বন্ধুর চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছিল জ্যাকি শ্রফকে। স্বল্পদৈর্ঘ্যের হলেও এই চরিত্রটি ছিল গুরুত্বপূর্ণ। সাক্ষাৎকারে গোবিন্দ জানিয়েছিলেন, এই চরিত্রের জন্য প্রথমে গোবিন্দকে প্রস্তাব দিয়েছিলেন ছবিনির্মাতারা।

‘দেবদাস’ ছবিতে শাহরুখের বন্ধুর চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছিল জ্যাকি শ্রফকে। স্বল্পদৈর্ঘ্যের হলেও এই চরিত্রটি ছিল গুরুত্বপূর্ণ। সাক্ষাৎকারে গোবিন্দ জানিয়েছিলেন, এই চরিত্রের জন্য প্রথমে গোবিন্দকে প্রস্তাব দিয়েছিলেন ছবিনির্মাতারা।

১৩ ১৫
গোবিন্দ জানিয়েছিলেন, ‘দেবদাস’-এর মতো বড় মাপের ছবিতে শুধুমাত্র পার্শ্বচরিত্রে অভিনয় করতে চাননি তিনি। তাই সঞ্জয়ের ছবিতে অভিনয়ের সুযোগ পেয়েও তা ফিরিয়ে দেন গোবিন্দ।

গোবিন্দ জানিয়েছিলেন, ‘দেবদাস’-এর মতো বড় মাপের ছবিতে শুধুমাত্র পার্শ্বচরিত্রে অভিনয় করতে চাননি তিনি। তাই সঞ্জয়ের ছবিতে অভিনয়ের সুযোগ পেয়েও তা ফিরিয়ে দেন গোবিন্দ।

১৪ ১৫
এক সময়ে সাফল্যের চূড়ায় থাকা গোবিন্দ ধীরে ধীরে বড় পর্দা থেকে দূরে সরে যেতে থাকেন। ২০১৯ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘রঙ্গিলা রাজা’ ছবিতে শেষ অভিনয় করেন তিনি।

এক সময়ে সাফল্যের চূড়ায় থাকা গোবিন্দ ধীরে ধীরে বড় পর্দা থেকে দূরে সরে যেতে থাকেন। ২০১৯ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘রঙ্গিলা রাজা’ ছবিতে শেষ অভিনয় করেন তিনি।

১৫ ১৫
বর্তমানে নাচের রিয়্যালিটি শোয়ের বিচারকের আসনে মাঝেমধ্যে দেখা যায় গোবিন্দকে। ‘আঁখে’, ‘রাজা বাবু’, ‘কুলি নম্বর ওয়ান’, ‘হিরো নম্বর ওয়ান’, ‘হসিনা মান জায়েগি’ এবং ‘বড়ে মিঞা ছোটে মিঞা’র মতো হিট ছবি রয়েছে গোবিন্দের কেরিয়ারের ঝুলিতে। এখন অভিনয়জগৎ থেকে শতহস্ত দূরে রয়েছেন তিনি।

বর্তমানে নাচের রিয়্যালিটি শোয়ের বিচারকের আসনে মাঝেমধ্যে দেখা যায় গোবিন্দকে। ‘আঁখে’, ‘রাজা বাবু’, ‘কুলি নম্বর ওয়ান’, ‘হিরো নম্বর ওয়ান’, ‘হসিনা মান জায়েগি’ এবং ‘বড়ে মিঞা ছোটে মিঞা’র মতো হিট ছবি রয়েছে গোবিন্দের কেরিয়ারের ঝুলিতে। এখন অভিনয়জগৎ থেকে শতহস্ত দূরে রয়েছেন তিনি।

সকল ছবি সংগৃহীত।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE