Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৩ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied

চিত্র সংবাদ

Aadhaar Card: আধার কার্ডে অন্য ফোন নম্বর জুড়ে জালিয়াতি চলছে! আপনিও ফাঁদে পড়েননি তো? দেখে নিন

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ১৪ মে ২০২২ ১৫:২৬
ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে শুরু করে প্যান কার্ডের সঙ্গে লিঙ্ক করা, অনন্য ১২ সংখ্যার আধার কার্ডের গুরুত্ব প্রতিটি দেশবাসীর জীবনে অপরিসীম।

ভারতীয়দের কাছে আধার কেবলমাত্র পরিচয়পত্র নয়, দেশবাসী হওয়ার প্রমাণ হিসেবেও উঠে এসেছে বার বার।
Advertisement
আধার সংস্থা ইউআইডিএআই-এর ওয়েবসাইটে বিভিন্ন প্রক্রিয়া রয়েছে, যার মাধ্যমে এক ব্যক্তি নিজের আধার সম্পর্কে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ নথি পেতে পারেন।

প্রযুক্তির বিবর্তনের পাশাপাশি ‘স্মার্ট’ মোবাইল ফোন আমাদের জীবনের অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে উঠেছে। ফোনে কথা বলার জন্য প্রয়োজনীয় সিম কার্ড পাওয়া যায় আধারের সাহায্যে।
Advertisement
আর এই আধার কার্ডের সাহায্যে নম্বর তোলার ফলে আপনা আপনিই আধারের সঙ্গে মোবাইল নম্বরটি যুক্ত হয়ে যায়।

তবে আপনার আধারের তথ্য যদি অন্য কারও হাতে যায়, তা হলে তা আপনার জীবনে বিপদও ডেকে আনতে পারে। আপনার আধার কার্ডের তথ্য ব্যবহার করে সিম কার্ড তুলে নিতে পারেন অন্য কোনও ব্যক্তি। কোনও অপরাধমূলক কাজেও সেই সিম ব্যবহার করা হতে পারে।

এর থেকে রেহাই পাওয়ার উপায়ও রয়েছে। বেশ কয়েকটি প্রক্রিয়া মেনে চললে আপনার নামে তোলা ভুয়ো সিম কার্ড আপনি বন্ধ করতে পারবেন।

কী ভাবে জানবেন আপনার আধার কার্ডের সঙ্গে কোনও ভুয়ো নম্বর যুক্ত রয়েছে কি না?

ভারতের টেলিকম বিভাগ সম্প্রতি ‘টেলিকম অ্যানালিটিক্স ফর ফ্রড ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড কনজিউমার প্রোটেকশন’ (টিএএফসিওপি) নামে একটি ব্যবস্থা চালু করেছে, যার মাধ্যমে এক জন ব্যক্তি তাঁর আধারের সঙ্গে ক’টি মোবাইল নম্বর যুক্ত রয়েছে, তা জানতে পারবেন। ভুয়ো নম্বর নিয়ে হওয়া জালিয়াতি রুখতেই ভারতের টেলিকম বিভাগের তরফে এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এই বিষয় জানতে প্রথমেই আপনাকে টিএএফসিওপি-র ওয়েবসাইট tafcop.dgtelecom.gov.in-এ যেতে হবে।

ওয়েবসাইট খুললেই নীচের দিকে দেখতে পাওয়া যাবে মোবাইল নম্বরের মাধ্যমে নথিভুক্তিকরণের একটি বাক্স। যে মোবাইল নম্বরটি আপনি জ্ঞানত আধারের সঙ্গে যুক্ত করেছেন, সেই নম্বরটি আপনাকে ওই বাক্সে লিখে ফেলতে হবে।

ফোন নম্বর ওই বাক্সে লেখার পর, মোবাইলে ওটিপি পেতে ওই বাক্সের নীচে ক্লিক করুন।

এর পরই নথিভুক্ত থাকা মোবাইল নম্বরে ওয়েবসাইটের তরফে একটি ওটিপি পাঠানো হবে।

মোবাইল নম্বরে ওটিপি আসার পর তা দেখে ওয়েবসাইটের চিহ্নিত করা নির্দিষ্ট বাক্সে লিখুন।

এর পরই আপনার কাছে একটি নতুন পাতা খুলে যাবে। এই পাতায় আপনি দেখতে পাবেন আপনার আধার কার্ডের সঙ্গে মোট ক’টি নম্বর যোগ করা রয়েছে।

যদি আপনি নিজের ব্যবহৃত মোবাইল নম্বরগুলিই স্ক্রিনের উপর দেখতে পান, তা হলে আপনি নিশ্চিন্ত। কিন্তু যদি দেখেন, ওই পাতায় এমন কোনও মোবাইল নম্বরের উল্লেখ রয়েছে, যা আপনার বা আপনার পরিবারের নয়, তা হলেই বিপদ। জানবেন, আপনার আধার কার্ডের তথ্য ব্যবহার করে অন্য কেউ মোবাইলের সিম কার্ড তুলেছেন।

তবে এ রকম কোনও অজানা নম্বর দেখলে একদম ঘাবড়াবেন না। ওই নম্বরগুলির নীচে থাকা ‘রিপোর্ট’ লেখা জায়গায় যে মোবাইল নম্বর আপনার নয়, সেটির ব্যাপারে জানান। সঠিক ব্যবস্থা নেবে টেলিকম বিভাগ।