Advertisement
২২ জুলাই ২০২৪
Durgapuja 2022

জনজাতি সমাজের নিজস্ব রীতিতে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে কেন্দপুকুর ভাঙাদিঘিতে পূজিত হন দুর্গা

১৫০ বছরের পুরনো এই পুজো। স্বপ্নাদেশ পেয়ে এই পুজো শুরু করেছিলেন লব হাঁসদা। বাংলাদেশের নাচোলের হাকরোল গ্রামে পুজোর শুরু হয়েছিল।

নিজস্ব সংবাদদাতা
মালদহ শেষ আপডেট: ০৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৫:৪৮
Share: Save:

গোটা গ্রামের একটাই পুজো। নিয়ম মেনে সপরিবারে উমা আসেন প্রতি বার। তবে পুজোর জন্য ডাকা হয় না কোনও ব্রাহ্মণ পুরোহিতকে। উচ্চারিত হয় না কোনও মন্ত্র। ভারত বাংলাদেশ সীমান্তে কেন্দপুকুর ভাঙাদিঘিতে দেবী দুর্গা পূজিত হন আদিবাসী সম্প্রদায়ের নিজস্ব রীতিতে।১৫০ বছরের পুরনো এই পুজো। স্বপ্নাদেশ পেয়ে পুজো শুরু করেছিলেন লব হাঁসদা। বাংলাদেশের নাচোলের হাকরোল গ্রামে পুজোর শুরু হয়েছিল। প্রথমে ঘট পুজো হলেও এখন মূর্তি পুজো হয়। এই চার দিন ধরেই উৎসবে মেতে থাকেন গ্রামবাসীরা।ভাঙাদিঘি গ্রামে দুর্গার নেই কোনও পাকা মণ্ডপ। টিনের ছাউনির নীচে বেদিতে পূজিত হন দুর্গা। আচার রীতির ঘনঘটা নয়, পুজো হয় আদিবাসীদের নিজস্ব ঢঙে, নিজস্ব মন্ত্রে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE