Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১০ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

কলকাতার এই একটা জিনিস আজও একই রয়ে গেল

মন খারাপ হলে ঢাকুরিয়া লেকের ধারে হাঁটতে হাঁটতে নিজের সঙ্গে সময় কাটালে মনে হয় এত শান্তি আর কোথায়?

সম্বরণ বন্দ্যোপাধ্যায়
কলকাতা ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১৮:১২
অলঙ্করণ: নিরুপম পাল।

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের লাইন ধার করেই বলি, ‘কলিকাতা আছে কলিকাতাতেই’।
অলঙ্করণ: নিরুপম পাল।

ছোটবেলায় দেখা কলকাতার সঙ্গে এখনকার কলকাতার তফাৎ অনেক হলেও শহরটা আজও খুব প্রিয়। উঁচু উঁচু বাড়িগুলো আকাশ ছুঁলেও মাটির গন্ধ যেন আজও পাওয়া যায় তাদের থেকে। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের লাইন ধার করেই বলি, ‘কলিকাতা আছে কলিকাতাতেই’।

মন খারাপ হলে ঢাকুরিয়া লেকের ধারে হাঁটতে হাঁটতে নিজের সঙ্গে সময় কাটালে মনে হয় এত শান্তি আর কোথায়? দক্ষিণ কলকাতায় কেটেছে ছোটবেলা। স্কুল, কলেজ সবই দক্ষিণে হওয়ায় কলকাতার এই প্রান্তেই যেন বেশি স্বস্তি পাই। অনেকবেশি খোলামেলা মনে হয় শহরটাকে। তবে আজ আমি যেটুকু পরিচিত হয়ে উঠতে পেরেছি তার জন্য কিছুটা কৃতিত্ব অবশ্যই দিতে হবে উত্তর কলকাতাকে। আমার কোচ স্বর্গীয় কার্তিক বসুর কাছে ক্রিকেট শিখতে যেতাম আমহার্স্ট স্ট্রিটে। আদি কলকাতার গন্ধ ওখানেই পাওয়া যায়।

আমার বড় হয়ে ওঠার পথে আজও একটা জিনিস কিন্তু একই রয়ে গিয়েছে। নিজামের রোল। সেই স্বাদ, গন্ধ, সবই যেন এক। কামড় বসালেই এক অদ্ভুত অনুভূতি। নিজামের রোল ছাড়া কলকাতা ভাবাই যায় না। আজও মাঝে মধ্যেই চলে যাই সেই স্বাদের টানে, নিজামের দরবারে।

Advertisement

কলকাতার আরও এক প্রাণের জিনিস ফুটবল। ছোটবেলায় ইস্টবেঙ্গলের ম্যাচ দেখার জন্য কতবার ছুটে গিয়েছি মাঠে। উত্তর কলকাতা টানত নাটকের জন্য। শোভাবাজারের রংমহলে বহু বার গিয়েছি নাটক দেখার নেশায়।

কলকাতার সঙ্গেই জড়িয়ে গিয়েছে এইগুলো, বা বলা ভাল কলকাতা এমন এক বট গাছ যার থেকে বিভিন্ন ঝুরি নেমেছে নাটক, ফুটবল, দুর্গাপুজো, খাওয়াদাওয়ার মতো। আমরা কলকাতাবাসীরা সেই বট গাছের ছায়ায় বেড়ে উঠছি, স্বস্তির নিঃশ্বাস নিচ্ছি। দিনে দিনে বড় হচ্ছে সেই বট গাছরূপী কলকাতা, আকাশ ছুঁয়েছে, তবু পাল্টে যায়নি।

Advertisement