Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৫ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

‘এথনিক লুক’ ফুটিয়ে তুলতে বাঙালির পছন্দের তালিকায় ঢুকে পড়েছে ওড়না

শ্রুবা ভট্টাচার্য
কলকাতা ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১৬:৫৮

জিনসের যুগেও মহিলারা নিজেদের কখনও কখনও ‘এথনিক লুক’- এ দেখতে চান। শাড়ি ছাড়া বাকি কোনও ভারতীয় পোশাক ওড়না ছাড়া যেন অসম্পূর্ণ। নানা ভাবে ওড়না দিয়ে আপনি আপনার এথনিক লুক বজায় রাখতে পারেন। ওড়নার বৈচিত্রও তো কম নয়! জেনে নেওয়া যাক বাজারে লভ্য কিছু ওড়নার কথা।

Advertisement



১. ফুলকারি – ফুলকারি পঞ্জাবের ঐতিহ্যবাহী ওড়না। এতে সাধারণত সুতির কাপড়ের উপর সিল্কের সুতোর কাজ করা থাকে। এখন যদিও সিল্ক, চান্দেরি, অথবা অন্যান্য কাপড়ের উপরেও কাজ করা ফুলকারি ওড়না পাওয়া যায়।

২. চান্দেরি – হাতে বোনা চান্দেরি শুধু বর্ণময় হয় না, এতে জটিল কাজ করা থাকে জরি দিয়ে। যে কোনও চুড়িদারকে ফুটিয়ে তুলবে এই ধরনের ওড়না।

৩. ইক্কত – ইক্কতের ওড়নায় সুতোর বান্ডিলগুলি একত্রিত করে এক বিশেষ রঞ্জনবিদ্যা প্রক্রিয়ায় বানানো হয়ে থাকে। কাপড় বোনার আগে রঙের প্রয়োগ করা হয়ে থাকে।



৪. বেনারসি ওড়না – বেনারসি সিল্কের কাপড় দিয়ে তৈরি এই ওড়না যে কোনও চুড়িদার অথবা ঘাগরাকে ফুটিয়ে তুলতে পারে।

৫. গোটা পাট্টি – বিয়েবাড়ি বা যে কোনও অনুষ্ঠানে পরার জন্য এই ধরনের ওড়না খুব মানানসই। এই ধরনের ওড়না মূলত রাজস্থানের। এগুলিতে সাধারণত জরি অথবা সোনা বা রুপোর কাজ করা থাকে নেটের কাপড়ের উপর।

এ ছাড়াও কলমকারি, মধুবনি, নেট ইত্যাদির ওড়নাও বাজারে চালু। আপনার পছন্দ মতো ওড়না কিনে পছন্দসই একটি চুড়িদার কিংবা ঘাগরার সঙ্গে মিলিয়ে পরুন। আপনি আরও বেশি করে 'এথনিক' ওড়নার দৌলতে।



Tags:

Advertisement