Follow us on
Powered by
Co-Powered by
Co-Sponsors
Powered by
Co-Powered by
Co-Sponsors

চুলের রং দীর্ঘস্থায়ী করতে কলকাতার আবহাওয়ায় যত্ন নেবেন কী ভাবে

মেনে চলুন এই পরামর্শগুলো। আপনার চুলের রং একেবারে থাকবে তরতাজা।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা| ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১৭:২৫ শেষ আপডেট: ০২ মার্চ ২০২১ ১৩:০৬

প্রতীকী চিত্র

বসন্ত পালাই পালাই করছে। ক’দিনের মধ্যেই কলকাতায় পড়বে প্যাচপ্যাচে গরম। মানে, ২-৩ স্তরের পোশাকের ফ্যাশনের দিন এ বারের মতো শেষ। ফলে কেতাদুরস্ত হয়ে উঠতে নজর দিতে হবে অন্য দিকে। তা হলে চুল রাঙালে কেমন হয়? গ্রীষ্মেও চুলে হোক বসন্ত উৎসব।

চুল রং করা তো এখন নৈমিত্তিক এ্কটা ব্যাপার। অনেকেই চান নতুন নতুন চুলের রঙে নিজেকে নতুন রূপে দেখতে। কিন্তু চুল রং করার পর আপনি কি চিন্তিত? বজায় রাখতে অসুবিধে হচ্ছে চুলের রং? মেনে চলুন এই পরামর্শগুলো। আপনার চুলের রং একেবারে থাকবে তরতাজা।

প্রতীকী চিত্র

প্রতীকী চিত্র

১. রং করার পর শ্যাম্পু করার আগে ৩ দিন অপেক্ষা করুন– চুল রং করার সময় কিউটিকল স্তরটি খুলে যায়, যাতে রং ঠিকমতো চুলের গোড়া পর্যন্ত ঢুকতে পারে। ৩ দিনের মধ্যে কিউটিকল স্তরটি বন্ধ হয়ে যায়, ফলে ৩ দিনের মধ্যে শ্যাম্পু লাগালে চুলের রং ধুয়ে যেতে পারে। তাই চুলের রং বজায় রাখার জন্য ৩ দিন অপেক্ষা করতে হবে।

২. সালফেট মুক্ত শ্যাম্পু ও কন্ডিশনার ব্যবহার করতে হবে– সালফেট এক প্রকার অ্যানায়োনিক ডিটারজেন্ট হিসেবে কাজ করে। যা অনেক ক্ষেত্রে চুলের রঙের ব্যাঘাত ঘটাতে পারে। তাই সালফেট মুক্ত শ্যাম্পু ব্যবহার করতে হবে, তার ফলে চুল তার আসল পরিস্থিতিতে থাকবে।

৩. কন্ডিশনারে রং যুক্ত করুন– আপনি যদি আপনার চুলে কোনো উজ্জ্বল রং প্রয়োগ করে থাকেন, তবে তা বজায় রাখার জন্য আপনাকে আপনার কন্ডিশনারে সেই রং মিশিয়ে দিতে হবে, এর ফলে চুলের রং বজায় থাকবে।

৪. গরম জলে চুল ধোয়া এড়িয়ে চলুন– চুল ধোয়ার সময় গরম জল ব্যবহার না করাই ভাল। এর ফলে চুলের কিউটিকল খুলে যেতে পারে। রঙের পক্ষে তা ক্ষতিকর।

৫. চুলের রং বজায় রাখতে চুল কম ধুতে হবে– সপ্তাহে খুব বেশি হলে ৩ বার চুল ধুতে পারেন। যত বেশি চুল ধোয়া হবে, তত চুলের রঙের ক্ষতি হবে।

আরও পড়ুন