Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৫ মে ২০২২ ই-পেপার

Jewellery: বসন্তের শহরে পোশাক যদি হয় পশ্চিমী, তবে গয়না হবে কেমন

এক সময়ে পাশ্চাত্যের পোশাকের সঙ্গে কোনও গয়নাই পরার চল ছিল না। কিন্তু গত দু’দশকে ভাবনা-চিন্তার সঙ্গে বদল ঘটেছে কলকাতাবাসীর সাজসজ্জাতেও।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২২ ১৮:০৭

ক্যারি করতে পারলে এই বসন্তে বিভিন্ন সাজগোজ নিয়ে পরীক্ষানিরীক্ষা আপনি করতেই পারেন

পোশাক নিয়ে নতুন প্রজন্মের খুঁতখুঁতুনির অন্ত নেই একেবারেই। তা ছাড়া এখন তো আমাদের শহরে বসন্তের সবে শুরু। ফলে শাড়ির সঙ্গে সঙ্গেই পরনে দেখতে পাওয়া যায় হালফ্যাশনের বিবিধ পরিধেয়। শীত কমতে শুরু করায় পশ্চিমী ধাঁচের জামাকাপড়ে ছেয়ে গিয়েছে চারদিক। কিন্তু শুধু পোশাক যথাযথ হলে তো চলবে না, সঙ্গে চাই মানানসই গয়না। এক সময়ে পশ্চিমী ধাঁচের পোশাকের সঙ্গে একেবারে কোনও গয়নাই পরার চল ছিল না। কিন্তু গত দু’দশকে ভাবনা-চিন্তার বদলের সঙ্গে বদলেছে কলকাতাবাসীর সাজসজ্জাও। এই বসন্তে বিভিন্ন সাজগোজ নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতে পারেন আপনিও।

চোকার

গলার সঙ্গে একেবারে লেগে থাকা এই অলংকার হালে শার্টের সঙ্গে পরতে দেখা যাচ্ছে কলকাতা শহরের মানুষজনকে। বিশেষ করে লম্বা গলা যাদের, তাদের জন্য এই গয়না পোশাকের সঙ্গে সামগ্রিক ভাবে সাজে যোগ করছে অন্য মাত্রা। অক্সিডাইজড কিংবা কাপড়ের তৈরি বিভিন্ন ধরনের চোকার আপনি এখন যে কোনও পোশাকের সঙ্গেই পরতে পারবেন।

Advertisement
বোহেমিয়ান ধাঁচের আংটিও এখন এই ধরনের পোশাকের সঙ্গে বেশ মানিয়ে যাচ্ছে।

বোহেমিয়ান ধাঁচের আংটিও এখন এই ধরনের পোশাকের সঙ্গে বেশ মানিয়ে যাচ্ছে।


ইয়ার-কাফ

ঠিক কানের দুল নয়, বরং কানের উপরের দিকের অংশকে দৃষ্টিনন্দন করে উপস্থাপন করে এই গয়নাটি। এর আর এক বিশেষত্ব হল এটি এক কানেও পরা চলতে পারে। জিন্সের সঙ্গে উপরে টপ বা কুর্তি যা-ই পরুন, পরনে একটি ইয়ার কাফ থাকলে আশপাশের মানুষের দৃষ্টি আপনিই আকর্ষণ করে নেবেন নিশ্চিত।

রূপোর গয়না

শুনতে আশ্চর্য লাগলেও ইদানীং পশ্চিমী ধাঁচের সঙ্গে রুপোর গয়না পরার চল বেড়েছে। রুপোর বালা কিংবা লম্বা হার এখন প্যান্ট, পালাজো কিংবা স্কার্টের সঙ্গে যথেষ্ট মানানসই ভাবে পরছে এই প্রজন্মের কলকাতাবাসী।

বোহেমিয়ান আংটি

পাশ্চাত্যের পোশাকের সঙ্গে সোনা-রুপোর গয়না পরতে দেখা যায় প্রচুর মানুষকেই। কিন্তু বোহেমিয়ান ধাঁচের আংটিও এখন এই ধরনের পোশাকের সঙ্গে বেশ মানিয়ে যাচ্ছে। তা ছাড়া, গয়না পছন্দ করেন এমন অনেক মানুষই হালকার মধ্যে বোহেমিয়ান আংটি বিশেষ পছন্দ করছেন। এই ধরনের আংটিতে থাকে বিভিন্ন রঙের খেলা। যা বিশেষ কোনও অনুষ্ঠানে আপনার উপস্থিতিকে অন্যদের থেকে বেশ কিছুটা আলাদা করে তুলবেই।

অ্যাঙ্কলেট

গয়না হিসাবে নূপুর ভারতীয়দের অত্যন্ত চেনা। কিন্তু পোশাক যদি হয় পশ্চিমী, তবে পায়ে ঝমঝমে মল পরা সব সময়ে সম্ভব হয় না। কিন্তু এই মুশকিল আসান করে দিয়েছে অ্যাঙ্কলেট নামক পায়ের গয়না। এটি এক পায়ে পরা সম্ভব। অনেকে বাহারি পোশাকের সঙ্গে উঁচু-হিল দেওয়া জুতো পরে সঙ্গে এমন একটি গয়না পায়ে দিয়ে নিন।

Advertisement