POWERED BY
CO-POWERED BY
Back to
Advertisment

Kojagari Laxmi Puja 2021: লক্ষ্মীপুজোয় উপোস রাখুন, কিন্তু শরীরের অবহেলা করে নয়

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২০ অক্টোবর ২০২১ ১৪:০৯

লক্ষ্মীপুজোর উপোসের মাঝেও রাখুন শরীরের খেয়াল।

লক্ষ্মীপুজোতে অনেকেই উপোস করেন। উপোস ভাঙে পুজোর পরে। কিন্তু এত ক্ষণ না খেয়ে থাকলে শরীরের উপর তার প্রভাব ভাল নাও হতে পারে। তা ছাড়া, পুজোর দিনে বেশ কিছু কাজও থাকে, ফলে শরীরের উপর ধকল পড়ে বেশি। তাই উপোস করলেও খেয়াল রাখতে হবে যেন নিজের শরীর না ভেঙে পড়ে। উপোস রাখার সময়ে কী ভাবে যত্ন নেবেন শরীরের?
১) আগের রাতে ভারী কিছু খাবেন না। বরং কোনও সহজপাচ্য খাবার খান। এতে আপনার বিপাক-ক্রিয়ার উপর চাপ পড়বে না। অল্প ভাত বা রুটির সঙ্গে বেশি পরিমাণে সব্জি খান।
২) নির্জলা উপোস না করাই ভাল। কারণ তা শরীরে পক্ষে ক্ষতিকর। অনেক ক্ষণ না খেয়ে থাকলে অম্বল হওয়ার আশঙ্কা বাড়ে। তার সঙ্গে জলের ঘাটতিতেও বেশ কিছু সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই উপোসের মাঝে একটু একটু করে জল খান। পারলে দু’ঘণ্টা অন্তর।
৩) শুধু জল খেতে হবে, এমন নয়। সঙ্গে চা, ফলের রস বা দইয়ের ঘোলের মতো পানীয়ও খান এই সময়ে।

Advertisement
গরম দুধ খেয়ে ঘুমাতে যান। সঙ্গে খেতে পারেন খেজুর বা কলার মতো ফল।

গরম দুধ খেয়ে ঘুমাতে যান। সঙ্গে খেতে পারেন খেজুর বা কলার মতো ফল।


৪) পুজোর কাজের চাপ থাকবে। তবু তারই মধ্যে খেয়াল করে মাঝেমাঝে চোখ-মুখে জলের ঝাপটা দিন। তাতে ক্লান্তি বা ধকল সামান্য হলেও কমবে।
৫) বাড়ির ভিতরেই থাকুন সারা দিন। বাইরে রোদের মধ্যে বেরোলে তা শরীরের পক্ষে কষ্টকর হতে পারে।
৬) সারা দিন উপোস করার পর খিদে মরে যেতে পারে। কিন্তু তবু খালি পেটে শুতে যাবেন না।
৭) উপোসের পরে বেশি শর্করা যুক্ত খাবার খান। তাতে কাজ করার শক্তি পাবেন। খেতে পারেন খেজুর বা কলার মতো ফল। তবে বেশি মিষ্টি কোনও খাবার খাবেন না। কারণ, সে ক্ষেত্রে গা গোলাতে পারে।
৮) ঘুমাতে যাওয়ার আগে ভাজা কিছু খাবেন না। অম্বল হতে পারে। গরম দুধ খেয়ে ঘুমাতে যান। তাতে ঘুম ভাল হবে।

Advertisement