চলতি বছরে বিশ্বে বৃদ্ধির হার ধাক্কা খেতে পারে। তার ঢেউ সব থেকে বেশি দুলিয়ে দিতে পারে উন্নয়নশীল দুনিয়াকেই। পূর্বাভাসে বিশ্ব অর্থনীতি সম্পর্কে এই সতর্কবার্তা উঠে এসেছে বিশ্ব ব্যাঙ্কের ‘গ্লোবাল ইকনমিক প্রসপেক্টস রিপোর্টে’। কিন্তু একই সঙ্গে তাদের দাবি, ২০১৮-১৯ সালে বৃদ্ধির নিরিখে গুরুত্বপূর্ণ অর্থনীতিগুলির মধ্যে শীর্ষ স্থানে থাকতে চলেছে ভারত। সম্ভাব্য বৃদ্ধির হার ৭.৩%। 

বিশ্ব ব্যাঙ্কের বক্তব্য, নোটবন্দি এবং জিএসটি রূপায়ণের প্রাথমিক ধাক্কা সামলে ভাল লগ্নি ও চাহিদার কক্ষপথে ফিরতে চলেছে ভারত। তবে বিশেষজ্ঞেরা বলছেন, উন্নয়নশীল অর্থনীতিগুলিকে যে সতর্কবার্তা বিশ্ব ব্যাঙ্ক দিয়েছে, ভারত একেবারে তার বাইরে থাকে কি? যে ভাবে অনিশ্চিত আন্তর্জাতিক পরিস্থিতির মুখোমুখি হওয়ার জন্য উন্নয়নশীল দেশগুলিকে কোমর বাঁধার কথা বলা হয়েছে, তাতে ভারতেরও আগাম সাবধান হওয়া প্রয়োজন বলে তাঁদের দাবি। 

মূলত আন্তর্জাতিক বাণিজ্য এবং উৎপাদন ধাক্কা খাওয়ায় ২০১৯ সালে বিশ্ব অর্থনীতির বৃদ্ধি কমে ২.৯% হতে পারে। ২০১৮ সালে তা ছিল ৩%। 

আর ভারতের বৃদ্ধি সম্পর্কে বিশ্ব ব্যাঙ্ক যে পূর্বাভাস দিয়েছে, কেন্দ্র ও রিজার্ভ ব্যাঙ্কের পূর্বাভাসও এর কাছাকাছি। আরও বলা হয়েছে, পরবর্তী দু’টি অর্থবর্ষে ভারতের বৃদ্ধির গড় হতে পারে ৭.৫%। সেখানে ২০১৮ সালে চিনের আর্থিক বৃদ্ধির হার ছিল ৬.৫ শতাংশের কাছাকাছি। এ বছর তা কমে ৬.২% হতে পারে।  

সংবাদ সংস্থা